মৌলভীবাজারে মর্চা নদী নিয়ে দুই গ্রামের বিরোধ, সংঘর্ষের আশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক,মৌলভীবাজার।।  মৌলভীবাজার সদর উপজেলাধীন ১নং খলিলপুর ইউনিয়নের মর্চা নদীতে মাছ ধরা ও ভোগ দখল করাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামের মানুষের মধ্যে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে।ধারনা করা হচ্ছে যেকোনো সময় বড় ধরনের সংঘর্ষ ঘটে যেতে পারে।
এলাকাবাসীর সাথে আলাপকালে জানা যায় গোরারাই,কাটারাই ও হলিমপুর মৌজাধীন এলাকায় ঐ নদীটি বর্ষাকালে তাঁরা তিনটি গ্রাম ক্রমান্ব়য়ে প্রতি বছর মাছে শিকার করেন । কিন্তু ইদানীংকাল পার্শবর্তী খলিলপুর গ্রামের কিছু পরিবার ঐ নদী এলাকায় সরকারী খাস জায়গায় বাড়ীঘর নির্মাণ করেছেন, সে সুবাদে তাঁরা মাছ ধরার চেষ্টা করেন এবং ভোগ দখলের পায়তারা  করায় এই উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।
এব্যাপারে স্থানীয় ৮নং ওয়ার্ডে মেম্বার হাজী আহমদ উদ্দীনের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, নদীটি সরকারী কিন্ত, আমার ওয়ার্ডের ওপর দিয়ে অতিবাহিত হওয়ার কারণে আমার এলাকার বিভিন্ন গ্রামের লোকজন পূর্ব থেকে এই নদীতে মাছ শিকার করে আসছেন,এখন তাঁরা অন্যায়ভাবে সেটা তাঁদের দখলে নেয়ার চেষ্টা করছেন।
অপরদিকে ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ আবু বক্করের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,  বিষয়টি এলাকার মুরব্বিয়ানরা আপোষে সালিশের মাধ্যমে নিস্পতির চেষ্টা করছেন, আশা রাখি একটা সুন্দর সমাধান হবে।
এ বিষয়ে মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আলমঙ্গীর হোসেনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে, তিনি ফোন রিসিভ করেননি।