জগন্নাথপুরে যুবকের রসহস্যজনক মৃত্যু: আটক-১

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি::  সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে জামির মিয়া (৩৫) নামের এক যুবকের রসহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সে নেত্রকোনা জেলার কালীয়া জুরি উপজেলার আজাদপুর (নয়া পাড়া) গ্রামের মৃত মফিজ মিয়া’র ছেলে। ঘটনার সাথে জড়িত সাকিল মিয়া সেকেল কে আটক করেছে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ। সে উপজেলার পৌরশহরের হবিবনগর এলাকার মৃত এখলাছ মিয়া’র ছেলে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জামির মিয়া স্বপরিবারে জগন্নাথপুর পৌরশহরের হবিবনগর (ঢরের পাড়) এলাকায় বস্তিতে থাকত। জীবিকা নির্বাহের জন্য সাকিল মিয়া’র কাছ থেকে একটি অটো-রিক্সা ভাড়া নিয়ে চালাত কিন্তু রিক্সাটি প্রায় ২০দিন আগে চুরি হয়ে যাওয়ায় তাদের মধ্যে দ্বন্ধের সৃষ্টি হয়। আর এরই জের ধরে সাকিল মিয়া গত ১৩ আগস্ট জামির মিয়াকে তার বাড়িতে আটক করে রাখে। পরে ১৬ আগস্ট শুক্রবার দুপুর ১২.৩০মিনিটে জামির মিয়া’র বুকে ব্যাথ্যা জনিত কারনে তাকে জগন্নাথপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে যান সাকিল মিয়া। তখন কর্মরত ডাক্তার তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য রের্ফাড করেন। অথচ জামির মিয়াকে সিলেট না নিয়ে আবার দুপুর ২টায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্মরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করেন। খবর পেয়ে জগন্নাথপুর থানার এসআই লুৎফুর রহমান লাশটি উদ্ধার করেন এবং ঘটনার সাথে জড়িত সাকিল মিয়া সেকেল কে আটক করেন।
এব্যাপারে জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত থাকা সাকিল মিয়াকে গ্রেফতার করে সুনামগঞ্জ কোর্টে প্রেরন করা হচ্ছে। এ বিষয়ে মামলা দায়ের এর প্রক্রিয়া চলছে। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে।
খবর পেয়ে সুনামগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার মো: মিজানুর রহমান মিজান বিপিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি বলেন, ঘটনার সাথে জড়িতথাকা অন্য লোকদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে।