যারা কাশ্মীর কে ভারতের অংশ বলে, তারা ইতিহাস জানে না – মহাসচিব আল্লামা ক্বাসেমী

সুরমা ভিউ।।  জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগরের আমীর আল্লামা নূর হুসাইন কাসেমী বলেছেন, বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের উপর আজ দমন নিপিড়ন চলছে, তারপরও ইসলামের অগ্রযাত্রা কোন অপশক্তি থামিয়ে রাখতে পারবে না। তিনি বলেন, কাশ্মীর একটি স্বাধীন রাজ্য, কাশ্মীর ভারতের অংশ নয়। যারা কাশ্মীর কে ভারতের অংশ বলে তারা ইতিহাস জানে না।

আল্লামা ক্বাসেমী আরো বলেন, কাশ্মীর আজ হাহাকার করছে। তাদের আর্তচিৎকার দেখার কেউ নেই। বিশ্ববাসীকে একদিন এর জবাবদিহীতার কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। শুধু কাশ্মীর নয়, দুনিয়াজুড়ে মুসলমানরা আজ নির্যাতিত, অবহেলিত। দুনিয়াব্যাপী নির্যাতিত মুসলমানদের অধিকার আদায়ে মাঠে ময়দানে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। তিনি বলেন, ১৯৪৮ সালের জাতিসংঘের চুক্তি লঙ্ঘন করে ৩৭০ ধারা বাতিল পূর্বক গায়ের জোড়ে ভারত সরকার কাশ্মীরি নিরাপদ বনি আদমের উপর জুলুম নির্যাতন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের আয়োজন করছে। অবিলম্বে তাদের স্বাধীনতা ও মৌলিক অধিকার ফেরত দিতে হবে। জুলুম নির্যাতন বন্ধ করতে হবে, ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার করে মানুষের স্বাভাবিক জীবন যাপনের সুযোগ করে দিতে হবে। তাদের মৌলিক মানবাধিকার অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত তৌহিদি জনতা দূর্বার আন্দোলন চালিয়ে যাবে। তিনি বলেন, ঈমানী চেতনার বলিয়ান হয়ে নির্যাতিত কাশ্মীরিদের অধিকার আদায়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের বিকল্প নেই। কাশ্মীরের জনগন স্বাধীনতা চাইলে উপমহাদেশের প্রাচীনতম রাজনৈতিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম তাদের সাথে থাকবে। তিনি বলেন, জমিয়তের নেতাকর্মীদের আল্লামা শিহাব উদ্দিনের মতো একেকজন সিপাহশালা’র হয়ে সকল বাঁধা উপেক্ষা করে সংগঠনের কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে হবে। সভা শেষে আল্লামা শায়খ শিহাব উদ্দিন (রহ.) রুহের মাগফেরাত ও বিশ্বে নির্যাতিত মুসলিম উম্মাহর জন্য বিশেষ মোনাজাত করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি।
শনিবার (১৭ আগস্ট) বিকেলে কানাইঘাট উপজেলা জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের উদ্যোগে পৌরসভাস্থ ইউনিক কমিউনিটি সেন্টারে শায়খুল হাদীস আল্লামা শিহাব উদ্দিন (রহ.) এর জীবন ও কর্ম শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

উপজেলা জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সভাপতি আল্লামা শফিকুল হকের সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক মুফতি এবাদুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা খলিলুর রহমানের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি আল্লামা শায়খ যিয়া উদ্দিন, সহ-সভাপতি আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক, প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীন।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ হুসাইন আহমদ, স্বাগত বক্তব্য রাখেন কানাইঘাট উপজেলা জমিয়তের নির্বাহী সভাপতি মাওলানা নুর আহমদ ক্বাসেমী।
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর জমিয়তের সাধারন সম্পাদক মাওলানা ফখরুজ্জামান, কানাইঘাট পৌর বিএনপির সভাপতি কাউন্সিলর শরিফুল হক, গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা জমিয়তের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা গোলাম আম্বিয়া কয়েছ, জেলা জমিয়তের প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক হাজী জসিম উদ্দিন, উপজেলা খেলাফত মজলিসের সভাপতি এবাদুর রহমান, সাধারন সম্পাদক ও ইউপি সদস্য ছাব্বির আহমদ, চতুল ঈদগাহ মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা তবারক আলী, শায়খ শিহাব উদ্দিনের পুত্র মাওলানা নজমুদ্দীন, উপজেলা যুবদলের সেক্রেটারী খসরুজ্জামান, জেলা ছাত্র জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ ফয়েজ উদ্দিন, মাওলানা নজরুল ইসলাম প্রমুখ।