সত্য প্রতিষ্ঠার জন্য সবাই কাজ করলে সমাজে বিশৃঙ্খলা থাকবে না – বিভাগীয় কমিশনার

সুরমা ভিউ।।  সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, শ্রীকৃষ্ণ সত্যের পালন আর দুষ্টের দমন করেছেন। সত্যের জন্য সংগ্রাম করে গেছেন। তার এই আদর্শকে যদি সবাই বুকে লালন করি তাহলে দেশের চেহারা পাল্টে যাবে। সারা বিশ্বের চেহারা পাল্টে যাবে। সবাই যার যার অবস্থান থেকে সত্য প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করলে সমাজে এত বিশৃঙ্খলা থাকবেনা।

গতকাল শনিবার রাতে শ্রীকৃষ্ণের শুভ আবির্ভাব তিথি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথাগুলো বলেন।
ইসকন সিলেটের সাধারণ সম্পাদক ভাগবত করুণা দাস ব্রহ্মচারীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বিজিত চৌধুরী, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের এনাটমি এন্ড হিস্ট্রোলজি বিভাগের প্রফেসর ড. জিতেন্দ্র নাথ অধিকারী, দৈনিক সিলেটের ডাক-এর বার্তা সম্পাদক সমরেন্দ্র বিশ্বাস সমর, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটর্স জার্নালিস্ট কমিশনের সভাপতি ফয়সল আহমদ বাবলু প্রমুখ।
এর আগে শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে ইসকন সিলেট মন্দিরে তিনদিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। শনিবার সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত কীর্তনমেলা, সন্ধ্যা ৭ টায় শ্রী শ্রী গৌরসুন্দরের আরতি, সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। রাত ৮ টায় অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। এছাড়া, রাত ১০ টায় মহা-অভিষেক অনুষ্ঠান ও রাত সাড়ে ১২টায় হয় অনুকল্প প্রসাদ বিতরণ।
শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে ২৫ আগস্ট রোববার থাকছে, নন্দোৎসব ও ইসকন এর প্রতিষ্ঠাতা আচার্য শ্রীল প্রভুপাদের ১২৩ তম শুভ আবির্ভাব তিথি মহোৎসব। এ উপলক্ষে দুপুর পর্যন্ত উপবাস। এছাড়া, সকাল ১১ টায় শ্রীল প্রভুপাদের অভিষেক অনুষ্ঠান, বেলা ১টায় শ্রীল প্রভুপাদের মহিমা কীর্তন, বেলা ১টা ৪৫ মিনিটে শ্রীল প্রভুপাদের চরণকমলে সহস্র লাল গোলাপ নিবেদন, বেলা ২টায় মহাপ্রসাদ বিতরণ, বেলা ৩টায় অফারিং লেটার পাঠ, সন্ধ্যা ৭টায় গৌরসুন্দরের আরতি, সাড়ে ৭টায় শ্রীল প্রভুপাদ কথামৃত, রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে শ্রীল প্রভুপাদের উদ্দেশ্যে ১২৩ পাউন্ড ওজনের কেক কাটা হবে। রাত ৯টায় থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ।