জগন্নাথপুরে আসামি ধরতে গিয়ে ৫ পুলিশ আহত,নারী সহ গ্রেফতার ৭

মোঃ আলী হোসেন খাঁন ::

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে পুলিশের কাছ থেকে আসামী ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন আসামি হেনকাপ সহ পলাতক রয়েছে । এ ঘটনায় নারী সহ ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে জগন্নাথপুর উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের কালনীরচর গ্রামে। গুরুতর আহত জগন্নাথপুর থানার এসআই আফছার আহমদকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি আহত ৪ পুলিশ সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, কালনীচর গ্রামের বাসিন্দা স্থানীয় ইউপি সদস্য শহকত হোসেনের স্ত্রী লাভলী বেগম, আলা মিয়া, শাহ আলম, লিটন মিয়া, নিজাম উদ্দিন, নজরুল ইসলাম ও হেনা বেগম।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, ৫ সেপ্টেম্বর রাতে জগন্নাথপুর উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের কালনীরচর গ্রামে আসামী গ্রেফতারে থানার এসআই আফছার আহমদ, এসআই অনুজ কুমার দাশ ও এসআই অনিক চন্দ্র দেবের নেতৃত্বে পুলিশ দল অভিযান চালায়। অভিযানকালে মোটরসাইকেল পুরানো মামলার আসামী স্থানীয় ইউপি সদস্য শওকত হোসেনের ভাই সবজুল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় আসামী পক্ষের লোকজন পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে একটি লাইটেস গাড়ি ভাংচুর করে আসামী সবজুল হোসেনকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে জগন্নাথপুর থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ দল গিয়ে আবারো অভিযান চালিয়ে নারী সহ ৭ জনকে গ্রেফতার করলেও আসামী সবজুল হোসেন পলাতক রয়েছে।
৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার আসামীদের সুনামগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় জগন্নাথপুর থানার এসআই অনুজ কুমার দাশ বাদী হয়ে ৩৯ জনকে আসামী করে থানায় পুলিশ অ্যাসল্ট মামলা দায়ের করেন। এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার এসআই হাবিবুর রহমান পিপিএম জানান, মামলার অন্য আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে। জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, এ ঘটনায় কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।