জোর পূর্বক ভূমি দখল করে মালামাল রেখে ভূমির ক্ষতি সাধনের অভিযোগ

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি:-  সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার কুশিয়ারা নদীর উপর নির্মিত রানীগঞ্জ সেতুর প্রকল্পের ঠিকাদারী প্রতিষ্টান এম.এম বিল্ডার্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড কর্তৃক অবৈধ ভাবে জোর পূর্বক ভূমি দখল, পাথর, পাথরের ব্লক ও মালামাল রেখে ভূমির ক্ষতি সাধর বিষয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দরখাস্তকারীর পক্ষে উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামের সাজন মিয়ার ছেলে শাহীর আহমদ তালুকদার সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরে অভিযোগ দেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রানীগঞ্জ দক্ষিণ পাড়ে এরালিয়া নামক স্থানে একষষ্ট্রি শতক আমন ভূমির মধ্যে সতের শতক ভূমি ভূমি অধিগ্রহন করা হয়েছে। বাকি ৪৪ শতক ভূমি গত তিন বছর যাবত রানীগঞ্জ সেতু প্রকল্পের ঠিকাদারী প্রতিষ্টান এম.এম বিল্ডার্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড অবৈধ ভাবে জোর পূর্বক দখর রেখে পাথর,রড ও পাথরের ব্লক তৈরি করে ব্লকের স্তুপ ও মালামাল রেখে ভূমির লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন করেছেন। তিন বছর যাবত জমিতে ফসল ফলাতে পারছেন না।
মালামাল সরানোর পর ভূমিতে কৃষি উপযোগি করতে অনেক টাকা ব্যায় হবে বলে অভিযোগে উল্ল্যেখ করা হয়। ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের প্রকৌশলী হারুনুর রশিদ, জামাল হোসেন, বিজন বাবুর সাথে কথা বলে কোন সমাধান হয় নাই।
এ ব্যাপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের প্রকৌশলী হারুনুর রশিদ চৌধুরীর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমাদের প্রতিষ্টানের দুই এক জনের সাথে আলাপ হয়েছে। কত টাকা দিব সেটি সিন্ধান্ত হয় নাই। আগামী সপ্তাহে এ সাইটে আসবো আসলে সমাধান হয়ে যাবে।