মহানবীকে নিয়ে কটূক্তি, ভোলায় পুলিশ-জনতার সংঘর্ষে নিহত ৬, আহত ৩ শতাধিক

নিউজ ডেস্ক: ভোলায় পুলিশের সঙ্গে মুসল্লিদের দফায় দফায় সংঘর্ষে ঘটনা ঘটেছে। রোববার সকাল পৌনে এগারোটা থেকে দুপুর সাড়ে বারোটা পর্যন্ত ভোলার বোরহানউদ্দিন এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ৬ জন নিহত এবং বহু পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ কর্তৃপক্ষ।

ভোলা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, শনিবার থেকে ঘটনার সূত্রপাত। এক সনাতন ধর্মাবলম্বী ছেলের ফেসবুক আইডি হ্যাক করে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর নামে কটূক্তি করে কতিপয় দুষ্কৃতিকারী, এর পরেই এই অবস্থা। এঘটনায় পুলিশ কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে এবং পুরো বিষয়টি বর্তমানে তদন্তনাধীন রয়েছে।

রোববার বোরহানউদ্দিন এলাকায় প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে মুসল্লিরা। সমাবেশে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের আশঙ্কা থাকায় পুলিশ সেখানে জমায়েত করতে বাধা দেয়। পুলিশের দাবি, বাধার একপর্যায়ে মুসল্লিদের ভেতরে লুকিয়ে থাকা দুষ্কৃতিকারীরা পুলিশের উপর হামলা চালায় এবং পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবরুদ্ধ করে রাখে।

নিরাপত্তার স্বার্থে পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ। আহতদের ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।