আই সি সি’র এ কেমন আচরণ!

icc’র বিচারের নিতীটা বুঝে আসছে না কোনভাবেই।সাকিবকে নষ্ট করতে বা চরিত্র হরণ করতে ফোন করেছিল মিঃ আগারওয়াল, উনি একজন ভারতীয় জোয়ারি।

 

ভারতে যখন সাকিব T20 খেলেন তখনকার ঘটনা, আবার ভারতে যখন এই প্রথম পূর্নাংগ সিরিজ খেলতে যাচ্ছে তখন এই তদন্ত রিপোর্ট ফুলে-ফেপে বের হয়েছে,সাকিব কোন অপরাধী নয়,তবে icc’কে না জানিয়ে ভুল করেছে,যথারীতি বিশ্বের ১নং খেলোয়াড় হিসাবে সহজেই মেনে নিয়েছে, ক্রিকেট কর্নধার icc’ র হুকুম।

 

আমার যেখানে বুঝের সমস্যা সেটা হল- কে এই মিঃ আগারওয়াল? তার অপরাধ কি icc’ র বিচারের উর্ধে? আগারওয়াল রা যদি এখন থেকে প্রতিদিন একজন করে প্লেয়ারকে ফোন করে? আগারওয়াল রা যদি বিচারের কোন পক্ষই না হয়, তাহলে ক্রিকেট ধংশ করতে যদি হাজার হাজার আগারওয়াল জেগে উঠে? icc কি প্রতিদিন হাজার হাজার বিচার শুনতে পারবে?

 

প্লেয়ার গুলো কি খেলা রেখে বিচার দিতেই থাকবে?icc কি ক্রিকেট উন্নয়ন রেখে আগারওয়াল রা কাকে ফোন করল তা নিয়েই ব্যস্ত থাকবে??

 

আমার মত দুনিয়ার সকল সাধারণ মানুষের চিন্তা যেমন বলে-যে আগারওয়াল এই অপরাধের হোতা,তার পরিচয় বের করে বিচারের আওতায় আনা হোক।

 

সাকিব বিশ্ব ক্রিকেটের বিশ্বয় একজন,ধংশ করলে আরেকজন তৈরি হতে সময় লাগবে, আগারওয়াল রা দুনিয়া ধংশের বিন্দু হোতা, একটা কমলেও স্বস্তি আসবে।এখন ক্রিকেট দুনিয়ার কর্তারা কি অপরাধীকে পুরস্কৃত করে, নিরপরাধ ভালবাসার পাত্র সাকিবকে এক তরফা সাজানো সাজা দিবেন সেটা উনাদের বিষয়, যা আমাদের নাগালে নেই, তবে আমার ক্ষুদ্র চিন্তা থেকে আপনাদের কাছে প্রশ্ন, এটাও কি বিচার…???

 

এনামুল হক লিলু

ক্রীড়াপ্রেমিক ব্যক্তিত্ব