ছাতকে দিঘলী-শিবনগরে সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় আটক ৪

স্টাফ রিপোর্টার।।  ছাতকে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় দিঘলী ও শিবনগর গ্রামে বিরাজ করছে পুলিশ আতংক।

সংঘর্ষে গুরুতর আহত শিবনগর গ্রামের খুরশিদ আলীর পুত্র ইয়াকুব আলীর মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে দিঘলী গ্রাম প্রায় পুরুষ শুন্য হয়ে পড়ে।

থানা ও দাঙ্গা পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে সংঘর্ষে জড়িত থাকার সন্দেহে ৪ ব্যক্তিকে আটক করে।

সংঘর্ষে গুরুতর আহত আরো ২জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হায়াতুন্নবীসহ পুলিশের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

বুধবার সন্ধ্যারাতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপজেলার দিঘলী ও শিবনগর গ্রামবাসীর দফায়-দফায় সংঘর্ষের ঘটনায় ব্যবসায়ী, পথচারীসহ দু’শতাধিক ব্যক্তি আহত ও ইয়াকুব আলী (৩০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়।

রাতে দিঘলী কালীদাসপাড়ায় অভিযান চালিয়ে জিয়াউল হকের পুত্র সাহেদ আলম (২৭), সুবোধ পালের পুত্র সজীব পাল (১৮), সুভাষ পাল (২২) ও সৈলেন ঘোষের পুত্র নির্মল ঘোষ (২১)কে আটক করে পুলিশ।

ছাতক থানার ওসি মোস্তফা কামাল আটকের বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সংঘর্ষে জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।