উৎসব মুখর পরিবেশে মহানগর আ’লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে – আহমদ হোসেন

সুরমা ভিউ।।  কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট জেলার সাংগঠনিক দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতা আহমদ হোসেন বলেছেন, আওয়ামী লীগের বড় শক্তি হলো জনগণ ও বঙ্গবন্ধু। সবচেয়ে প্রচীনতম রাজনৈতিক সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও স্বপ্ন পূরণ করতে জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশের দুর্নীতি বিরোধী কর্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। এতে করে কেউ রেহাই পাবে না। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে দেশ আজ বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে। আওয়ামী লীগ সরকারের সকল উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড জনগণের সামনে তুলে ধরার জন্য তিনি দলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, উৎ;সব মুখর পরিবেশে মহানগর আওয়ামীলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে, সেই সম্মেলনে কেন্দ্রীয় নেতারাও উপস্থিত থাকবেন। উৎসব মুখর পরিবেশে সফলভাবে সম্মেলন সম্পন্ন করা ও সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

তিনি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিলেট নগরীর তালতলাস্থ গোলশান সেন্টারে মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সভাপতিত্বে ও মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিনের পরিচালনায় বর্ধিত সভায় বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি তুহিন কুমার দাস মিকন, সিরাজুল ইসলাম, সাবেক কাউন্সিলর আব্দুল খালিক, মোসাররফ হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল আনোয়ার আলোয়ার, বিজিৎ চৌধুরী, অধ্যাপক জাকির হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, নুরুল ইসলাম পুতুল, এটিএম এ হাসান জেবুল, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ফাহিম আনোয়ার, দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট শামসুল ইসলাম, ধর্ম সম্পাদক ফরহাদ বক্স, প্রচার সম্পাদক আব্দুর রহমান জামিল, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জগদ্বীশ চন্দ্র দাস, বিজ্ঞান প্রযুক্তি সম্পাদক সৈয়দ শামীম আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক আজহার উদ্দিন জাহাঙ্গীর, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মখলিছুর রহমান কামরান, শিক্ষা সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক দিবাকর কুমার ধর রাম, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক জুবের খান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক প্রিন্স সদরুজ্জামান, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মিসবাউল ইসলাম সুইট, উপ-দপ্তর সম্পাদক বিধান কুমার সাহা, উপ-প্রচার সম্পাদক গোলাম সোবহান চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন বারা, কার্যকরি সদস্য ফারুক আহমদ চৌধুরী, আব্দুল মুকিত, এডভোকেট বেলাল, এডভোকেট জসিম উদ্দিন, এডভোকেট প্রদীপ ভট্টাচার্য্য, আসমা আহমদ, ছালেহ আহমদ সেলিম, মহি উদ্দিন লোকমান, এডভোকেট জনেল আহমদ, আব্দুল গফফার উনু, জামাল আহমদ চৌধুরী, কামাল আহমদ, ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল ইসলাম, প্রদীপ পুরকায়স্থ, আজমান খান, আব্দুস সোবহান, নাজমুন ইসলাম এহিয়া সহ মহানগর আওয়ামীলীগের ২৭টি ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দও উপস্থিত ছিলেন।