সিলেটে চারদিন ২০ কোটি ছাড়িয়েছে কর আদায়

সুরমা ভিউ।।  সিলেটে আয়কর মেলায় চারদিনে ২০ কোটি ৮২ লাখ ৭৯ হাজার ২৯১ টাকা কর আদায় হয়েছে। এ কয়দিনে রিটার্ণ দাখিল করেছেন ৭ হাজার ৩১৬ জন, সেবা গ্রহণ করেছেন ১৭ হাজার ৮৩ জন এবং চারদিনে নতুন করে ইটিআইএন নিয়েছেন ৪৭২ জন।

কর অঞ্চল সিলেটের উপ কর কমিশনার (সদর দপ্তর ও প্রশাসন) কাজল সিংহ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, এরমধ্যে রোববার (১৭ নভেম্বর) সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ জেলা ও গোলাপগঞ্জ, ছাতক, বালাগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার মেলা থেকে মোট কর আদায় হয়েছে ৪ কোটি ২১ লাখ ৭৭ হাজার ৪৯৩ হাজার টাকা, রিটার্ণ দাখিল করেছেন ২ হাজার ৭৮১ জন, সেবা নিয়েছেন ৬ হাজার ৯৭ জন এবং ২৪১ জন নতুন ইটিআইএন নিয়েছেন। এরআগে শনিবার (১৬ নভেম্বর) মেলার তৃতীয় দিনে সিলেট বিভাগে মেলা থেকে ১৬ কোটি ৬১ লাখ ১ হাজার ৭৯৮ টাকা কর আদায় হয়।
মেলা থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, এদিন (রোববার) সিলেট নগরের মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামে আয়োজিত ৭দিন ব্যাপী মেলার তৃতীয় দিনে কর আদায় হয় ৪ কোটি ২ লাখ ৩৫ হাজার ৭০০ টাকা, রিটার্ণ দাখিল করেন ১হাজার ৩৬৮ জন,সেবা নেন ৩ হাজার ৪০৫ জন, নতুন ইটিআইএন নিয়েছেন আরও ৯২ জনে।
গত চার দিনে নগরীর রিকাবিবাজার মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামের মেলায় ৪ হাজার ৪৫৯ জন রিটার্ণ দাখিল করেন, বিপরীতে কর আদায় হয় ২০ কোটি ২৯ লাখ ৯ হাজার ৮১৪ টাকা। এখানে মোট সেবা গ্রহিতা ১১ হাজার ৪৮৬ জন এবং নতুন করে ইটিআইএন নেন ২৬৬ জন।
মৌলভীবাজারের কর মেলা গত ৩ দিনে ১হাজার ৫৮৮ জন রিটার্ণ দাখিল করেন। বিপরীতে আদায় হয় ৩৭ লাখ ৬৫ হাজার ৭১৫ টাকা। মোট সেবা নেন ২ হাজার ২৫৫ জন এবং ১০০ জন ইটিআইএন নিয়েছেন। রোববার মেলায় রিটার্ণ দিয়েছেন ৪৯৮ জন, বিপরীতে আদায় হয় ৭ লাখ ৬২ হাজার ৬৭২ টাকা। এদিন সেবা নিয়েছেন ৭৭৮ জন এবং নতুন করে ইটিআইএন নিয়েছেন ৬১ জন।
সুনামগঞ্জে ২দিনে মেলায় ৪০৩ জন রিটার্ণ দাখিল করেছেন, বিপরীতে ৩লাখ ৪৯ হাজার ৪১৮ টাকা। দুই দিনে সেবা নিয়েছেন ১ হাজার ৮৫৮ জন এবং ৪৫ জন নতুন ইটিআইএনধারী হয়েছেন। রোববার মেলায় রিটার্ণ দিয়েছেন ২৬৪ জন, বিপরীতে ১ লাখ ৪৭ হাজার ১৩২ টাকা আদায় হয়েছে। এদিন সেবা নেন ৯৮৬ জন এবং ৩১ জন ইটিআইএন খোলেন।
হবিগঞ্জ জেলায় চারদিন ব্যাপী মেলা রোববার (১৭ নভেম্বর) শুরু হয়েছে। এদিন মেলা থেকে ৫ লাখ ৩৮ হাজার ৭৬৪ টাকা আদায় হয়েছে। এই জেলায় রিটার্ণ দাখিল করেছেন ৩৫৮ জন এবং সেবা নিয়েছেন ৬২৫ জন ও ৪০ জন নতুন করে ইটিআইএনধারী হয়েছেন।
গোলাপগঞ্জ উপজেলায় ১৬ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া দুই দিনের মেলা সমাপ্ত হয়েছে রোববারে। এ দুইদিনে আদায় হয়েছে ২ লাখ ৮৫ হাজার ৭২০ টাকা। রিটার্ণ দাখিল করেন ৯২ জনে, সেবা নেন ১৩১ জনে এবং নতুন করে ইটিআএন নেন দু’জন। এরআগে শনিবার এ উপজেলায় মেলার প্রথম দিনে রিটার্ণ দাখিল করেন ৩৭ জনে, বিপরীতে ৮৯ হাজার ৭২০ টাকা কর আদায় করা হয় এবং একজনে নতুন ইনিআইএন গ্রহণ করেন।
সুনামগঞ্জে ছাতক উপজেলায় দুই দিনব্যাপী মেলার প্রথম দিনে (রোববার) ৩০ জন রিটার্ণ দাখিল করেন। বিপরীতে ১৩ হাজার ৫৮৯ টাকা কর আদায় হয়। এদিন মেলায় এসে সেবা নেন ৭০ জন।
সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলায় মেলার দুই দিনে (১৫ ও ১৬ নভেম্বর) আদায় ছিল ১ লাখ ৩২ হাজার ৬৩৫ টাকা কর আদায় করা হয়। রিটার্ণ দাখিল করেন ১৭৮ জনে, সেবা নেন ৫০১ জন এবং ৩ জন নতুন ইটিআইএন নেন।
মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে রোববার থেকে দুই দিনের মেলা শুরু হয়েছে। মেলার প্রথম দিনে আদায় হয় ২ লাখ ৮৩ হাজার ৬৩৬ টাকা। বিপরীতে ২০৮ জন রিটার্ণ দিয়েছেন। সেবা নিয়েছেন ১৫৭ জন এবং ১৬ জন নতুন করে ইটিআইএন নিয়েছেন।
“আমরা স্বাবলম্বী হব সকলে কর দেব” এই স্লোগানে সাত দিন ব্যাপী আয়কর মেলা গত বৃহস্পতিবার উদ্বোধন হয়। আগামি ২০ নভেম্বর পর্যন্ত মেলা চলবে। মেলায় সার্ভিস ডেস্ক, ইটিআইএন, রিটার্ন গ্রহণ, সঞ্চয়ী ব্যুরো, সামরিক-আধা সামরিক, সশস্ত্র বাহিনী ও মুক্তিযোদ্ধা বুথ, সিনিয়র সিটিজেন, আইনজীবী, মহিলা প্রতিবনন্দ্বি ও সাংবাদিকদের ব্যাংকসহ ২৫টি বুথের মাধ্যমে সেবা দেওয়া হচ্ছে।