বিশ্বনাথে কলেজ ছাত্রদলের সভাপতির উপর হামলা, জুতা-ঝাড়– মিছিল : আটক ৫

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি।।  গ্রুপিং দ্বন্দের জের ধরে সিলেটের বিশ্বনাথ সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি রাসেল আহমদের উপর হামলা করেছে প্রতিপক্ষ। রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার পুরাণ বাজার এলাকায় একটি দোকানের মধ্যে ডুকে ছাত্রদল নেতা রাসেলের উপর হামলা করে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সাজ্জাদ আলী শিপলু ও ছাত্রদল নেতা ইমরান হোসেন টিটু। হামলায় আহত হয়ে রাসেল আহমদ প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহন করেছেন।

এদিকে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক হাজী আবদুল হাই গ্রুপের অনুসারী ছাত্রদল নেতা রাসেলের উপর হামলার পরপরই উপজেলা সদরে জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে জুতা ও ঝাড়– মিছিল করেছে জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রহমান খালেদের অনুসারীরা। এরপর সুহেল আহমদ চৌধুরীর অনুসারীরাও বিক্ষোভ মিছিল করে।
উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে থানা পুলিশ উপজেলা সদরে ঝটিকা অভিযান চালিয়ে ব্যাপক দেশীয় অস্ত্র (লাঠি, রড়, পাইপ) উদ্ধার করে। এসময় পুলিশ সুহেল আহমদ চৌধুরী গ্রুপের উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য জয়নাল আবেদীন (৪৪), স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সাজ্জাদ আলী শিপলু (৩০), ছাত্রদল নেতা ইমরান হোসেন টিটু (২৪), বিএনপি নেতা বাবুল মিয়া (৪৬) ও জুনাব আলী (৪০)’কে গ্রেপ্তার করে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিশ্বনাথ সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি রাসেল আহমদ উপজেলা সদরের পুরাণ বাজারস্থ একটি মোবাইলের দোকানে প্রবেশ করা মাত্রই অতর্কিতভাবে স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সাজ্জাদ আলী শিপলু ও ছাত্রদল নেতা ইমরান হোসেন টিটুর নেতৃত্বে গ্রুপিং দ্বন্দের জের ধরে তার (রাসেল) উপর হামলা করা হয়। অতর্কিত হামলায় রাসেল আহত হন। রাসেলের উপর হামলা হওয়ার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা সদরে জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে জুতা ও ঝাড়– মিছিল করেন তার (রাসেল) গ্রুপের নেতাকর্মীরা। এরপর কিছুক্ষণ পরই পাল্টা বিক্ষোভ মিছিল করেন সুহেল আহমদ চৌধুরীর অনুসারী নেতাকর্মীরা। এরপর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ঝটিকা অভিযান চালিয়ে থানা পুলিশ ব্যাপক দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার ও ৫ জনকে আটক করে।
অস্ত্র উদ্ধারের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা বলেন, শান্ত বিশ্বনাথকে অশান্ত করতে বিশৃংখলা সৃষ্টি করার কারণে তাদেরকে আটক করা হয়েছে। এব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।