১৬ বছর বয়সী পেসার নাসিম শাহ’র অভিষেক হচ্ছে

মাত্র ১৬ বছর বয়সে অভিষেক হচ্ছে উদীয়মান পাকিস্তানি পেসার নাসিম শাহ’র। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে বুধবার (২১ নভেম্বর) অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামছে সফরকারী পাকিস্তান। আর এই সিরিজকে সামনে রেখে প্রস্তুতি ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের বিপক্ষে ১৬ বছর বয়সী তরুণ নাসিম শাহ বল হাতে আগুন ঝড়িয়েছেন। তার সেই বোলিংয়ের ভিডিও সসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তাকে প্রথম টেস্টের একাদশে নেয়ার রব উঠে। এবার তা সত্য বলে প্রমাণিত করলেন পাকিস্তানের নতুন টেস্ট অধিনায়ক আজহার আলি। তিনি জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে একাদশে থাকছেন ১৬ বছর বয়সী এই কিশোর।

 

আর যদি সত্যি নাসিমের অভিষেক হয়েই যায় তাহলে সবচেয়ে কম বয়সী ক্রিকেটার হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট খেলার রেকর্ড গড়বেন তিনি। অসিদের বিপক্ষে সবচেয়ে কম বয়সে অভিষেক হয়েছিল ভারতের হরভজন সিংয়ের। ১৭ বছর ২৬৫ দিনে অসিদের বিপক্ষে ভারতীয় স্পিনারের অভিষেক ঘটেছিল ১৯৯৮ সালে।

পাকিস্তান অধিনায়ক আজহার আলি তার অভিষেকের কথা জানিয়ে বলেন, ‘আমরা অবশ্যই তাকে খেলানোর চিন্তা করছি। তার বোলিং সত্যিই দুর্দান্ত। আমরা হয়তো আগামীকাল ম্যাচের আগে একাদশ ঘোষণা করবো। তবে, সেই একাদশে সে থাকতেছে, এটা নিশ্চিত। আজহার আলি নাসিম শাহের প্রশংসা করে বলেন, ‘এত কম বয়সে খুব কম ক্রিকেটারই এমন একটা মানের পর্যায়ে পৌঁছাতে পারে। তবে কিছু ব্যতিক্রম তো থাকেই। তিনি তাদের মধ্যে একজন। আমরা সবাই তার দুর্দান্ত সফল একটি ক্যারিয়ারের অপেক্ষায়।

 

আমি তাকে যখন প্রথম দেখি, তখনই খুব অবাক হয়ে গিয়েছিলাম। বলের ওপর তার নিয়ন্ত্রণ, গতি এবং টেম্পারমেন্টের ওপর তার যে নিয়ন্ত্রণ- তা দেখে যে কারও অবাক হওয়ার কথা।’ অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক টিম পেইন বলেন, ‘আমি সর্বশেষ কিছুদিন ক্লাব ক্রিকেটে এমন ১৬ বছর বয়সী ক্রিকেটারের বিপক্ষে খেলেছি। তবে, অবশ্যই টেস্ট ক্রিকেট আলাদা একটা পর্যায়। এখানে ১৬ বছর বয়সী একজনের খেলা অস্বাভাবিকই বটে। তবে তাকে দেখেই মনে হচ্ছে, সে সত্যিই দুর্দান্ত এক প্রতিভা। পাকিস্তান প্রায়ই এ ধরনের ভালো মানের পেসার পেয়ে থাকে। নিঃসন্দেহে সে হবে পাকিস্তানের পেস বোলার উৎপাদনের ইতিহাসে অন্যতম সেরা একটি রত্ন।