নারী সমাজকে এগিয়ে নিতে পরিবারের সদস্যদেরকে সহযোগিতা করতে হবে – এ.জেড. রওশন জেবীন রুবা

সুরমা ভিউ।।  সিলেট জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও পুষ্প যুব কল্যাণ সংস্থার উপদেষ্টা এ.জেড রওশন জেবীন রুবা বলেছেন, সমাজ উন্নয়নে সমাজের প্রতিটি পুরুষের যেমন অবদান রয়েছে, পাশাপাশি মহিলাদেরও অবদান রয়েছে। তাই সমাজের এই গুরুত্বপূর্ণ অংশ মহিলারা যদি স্বাবলম্বী হয়ে উঠেন তাহলে সমাজের উন্নতি-সমৃদ্ধি অর্জন সম্ভব। ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে যুবদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে যুব শক্তির অংশ গ্রহণ অত্যন্ত জরুরি। দেশের অধিকাংশ যুবক ও যুব মহিলা কর্মসংস্থানের অভাবে বেকার দিন যাপন করছেন। তাদেরকে উপযুক্ত প্রশিক্ষণ ও আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টিতে উৎসাহ প্রদান করতে হবে। শিক্ষিত যুব মহিলারা চাকুরীর প্রত্যাশী না হয়ে যদি উৎপাদনমুখী প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে আত্মকর্মসংস্থানে এগিয়ে আসেন তাহলে নিজের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি অন্যান্য স্বল্প শিক্ষিত যুবক ও যুব মহিলাদেরও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। তাই চাকুরীবিহীন শিক্ষিত যুবকদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ ও আত্মকর্মসংস্থান প্রকল্প গ্রহণে মাধ্যমে বেকারত্ব দূরীকরণে এগিয়ে আসার আহবান জানা।
তিনি ২ ডিসেম্বর সোমবার দুপুর ১২টায় সিলেট সদর উপজেলার ৭নং মোগলগাঁও ইউনিয়নের ভগতিপুর গ্রামে পুষ্প যুব কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে মাসব্যাপী ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।


সিলেট জেলা পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ শাহানুর এর সভাপতিত্বে ও পুষ্প যুব কল্যাণ সংস্থার কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য যুব সংগঠক আফিকুর রহমান আফিকের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুষ্প যুব কল্যাণ সংস্থার উপদেষ্টা এ.জেড লায়লা জেবীন, বিশিষ্ট মুরব্বী আব্দুল মোছাব্বির, সাবেক মেম্বার মোঃ বাবুল মিয়া। অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন পুষ্প যুব কল্যাণ সংস্থার সহ সভাপতি দ্বীনা হোসেন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক খোদেজা ইসলাম চৌধুরী, মহিলা ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক নাইমুন নাহার নীরা, কমিউনিটি নেতা প্রবাসী আল আমিন জয়নাল, ভগতিপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সমাজকর্মী সামসুল ইসলাম সিরাজ, আব্দুল্লাহ আল মেহেদী, আল মারজান মাহী, মোঃ আলী হোসেন, আজীজুর রহমান, জাহারুন নেছা। প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাজেদা আক্তার পপি প্রমুখ।
শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মোমিনা খাতুন। বিজ্ঞপ্তি