আরিফকে টপকে গেলেন গউছ!

প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় আসামি আরিফুল হক চৌধুরী ও জিকে গউছ। তারা দু’জনই জনপ্রতিনিধি। দীর্ঘদিন ধরে তারা দু’জনই কারাগারে রয়েছেন। এমনকি তারা দু’জনই দীর্ঘদিন ধরে বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত। তাদের দলীয় পদও ছিল এক। তবে জিকে গউছের চেয়ে আরিফুল হক চৌধুরীই অপেক্ষাকৃত প্রভাবশালী নেতা। তবে এবার বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটিতে আরিফকে টপকে গেছেন জিকে গউছ। পদের দিক থেকে গউছ এগিয়ে গেলেও আরিফ রয়েছেন আগের পদেই।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করেন। নতুন এ কমিটিতে জিকে গউছকে কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। এবারের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তিনি সম্পাদকীয় পদ পেয়েছেন। তাকে সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করা হয়েছে।

অপরদিকে আরিফুল হক চৌধুরীকে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সম্পাদক পদেই রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, আরিফুল হক চৌধুরী সিলেট সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত মেয়র ছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় তাকে যেতে হয়েছে কারাগারে। এরপর তিনি সাময়িকভাবে মেয়র পদ বরখাস্ত হয়েছেন। অপরদিকে জিকে গউছ হবিগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচিত মেয়র। তিনিও একই মামলায় কারাগারে রয়েছেন।