|

জলন্ত কয়েলের ওপর মশা!

রাজধানীতে বাড়ছে মানুষ। সেই সাথে হচ্ছে পরিবেশ দূষণ। ময়লা আবর্জনা পড়ে থাকছে যেখানে সেখানে। ড্রেনগুলো নিদ্রিষ্ট সময়ে হচ্ছে না পরিষ্কার। যার ফলে রাজধানী ঢাকায় অতি সম্প্রতি মশার উৎপাত বেড়েছে। শুধু বেড়েছে বললে ভুল হবে কোথাও কোথাও এর উৎপাতে টিকে থাকা দায়। মশা থেকে পরিত্রাণের জন্য কয়েল ব্যবহৃত একটি বস্তু। বহু আগে থেকে এর ব্যবহার উপমহাদেশে হয়ে আসছে।

এক সময় মশায় নিরোধক কয়েলে ডিডিটি ও এন্ড্রিন নামের অনেক ক্ষতিকর উপাদান ব্যবহৃত হতো। সেটা বহু আগের কথা। ধীরে ধীরে কয়েলে বিষাক্ত উপাদান কমিয়ে এনে মশাকে দমনের উপযোগী করা হয়েছে। কয়েলের বিকল্প অনেক কিছু আবিস্কার হয়েছে কিন্তু কয়েল সেই নিজের স্থানেই সমুজ্জ্বল।

রাজধানীতে বাড়ছে মানুষ। সেই সাথে হচ্ছে পরিবেশ দূষণ। ময়লা আবর্জনা পড়ে থাকছে যেখানে সেখানে। ড্রেনগুলো নিদ্রিষ্ট সময়ে হচ্ছে না পরিষ্কার। যার ফলে রাজধানী ঢাকায় অতি সম্প্রতি মশার উৎপাত বেড়েছে। শুধু বেড়েছে বললে ভুল হবে কোথাও কোথাও এর উৎপাতে টিকে থাকা দায়। মশা থেকে পরিত্রাণের জন্য কয়েল ব্যবহৃত একটি বস্তু। বহু আগে থেকে এর ব্যবহার উপমহাদেশে হয়ে আসছে।

একটা মশার কয়েল থেকে যে পরিমান ধোঁয়া বের হয় তার ১০০ টা সিগারেটের সমান ক্ষতিকর। কিন্তু এই কয়েলের ওপরেই যদি মশা বসে? তাহলে আর বিশ্বাস কোথায় রাখবেন? সম্প্রতি এমনই একটি ভাইরাল হয়েছে। ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে একটি জ্বলন্ত কয়েলের ওপর মশা বসে আছে। আর সেই ছবি ছড়িয়ে পড়ছে নেটিজেনদের ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার হ্যান্ডেলে।

নানা রকম প্রতিক্রিয়ায় ভ’রে যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া। আর এমনটা যে এটা তো স্বাভাবিক। কেননা এমন দৃশ্য কে কবে কোথায় দেখেছে?

সংবাদটি 190 বার পঠিত
advertise