|

দিরাইয়ে জামিন পেয়ে বেপরোয়া ছালিক বাহিনীর সদস্যরা

নিজস্ব প্রতিবেদক।। সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের জগদল ইউনিয়নের রাজনগর (হালেয়া) গ্রামের চাঁদাবাজি ও জমি দখল মামলায় জামিন পাওয়ার পর আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ছালিক মিয়া বাহিনীর তোফায়েল ও তার ক্যাডার বাহিনীর সদস্যরা।

চাঁদাবাজি মামলার বাদী নুর এর পরিবার ও তার আত্বীয়দের তারা হুমকি, ধমকি ও নির্যাতন শুরু করেছে।ছালিক মিয়া নেপ্যথে থাকা লন্ডন প্রবাসী হেলিম মিয়া আর্থিকভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় সাধারণ জনগণ অনেকটা অসহায়। এ কারণে যে কোনো সময় বড় ধরনের অঘটন ঘটতে পারে। এ নিয়ে এলাকার নিরীহ লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

গতকাল বুধবার ছালিক ও তোফায়েল বাহিনীর হামলার চেষ্টার পর রাতে জিডি করেছেন নুর। নূর রাজনগর গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী জুয়েল এর ছোট ভাই । জিডিতে তিনি উল্লেখ করেন থানায় আশ্রয় নিয়ে তিনি ক্যাডারদের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন। তিনি বলেন বুধবার সকাল থেকে ছালিক বাহিনীর তোফায়েল জামিনে নিয়ে এসে বাদী পক্ষ কে গায়েল করতে জেলার জগন্নাথপুর সহ বিভিন্ন এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের ভাড়া করে এনে ওই মামলার বাদী নুর মিয়ার বাড়িতে গতকাল বিকেলে হামলা করে। ভাড়াটে ক্যাডারদের হামলায় আমাদের অনেকেই আহত হয়েছে।

এ ব্যাপারে দিরাই থানার ওসি মোস্তফা কামাল সুরমা ভিউকে বলেন, আলোচিত এই মামলার সবাই সুনামগঞ্জ কোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন।আজকের জিডির ব্যাপারে তিনি বলেন অত্র গ্রামের নূর একটি অভিযোগ প্রদান করেছেন।

গ্রামের প্রত্যক্ষদর্শীরা সুরমা ভিউ কে জানান,গতকাল প্রবাসী জুয়েল এর লোকজন তাদের দখলকৃত জায়গা হেলিম মিয়ার দেয়া পিলার উপড়ে তাদের দখলে নিয়ে যায়,আজকে হেলিম এর লোকজন আবার সেই জায়গায় পিলার দিয়ে জায়গা দখল করেছে।

জানা যায় আজ বুধবার সকাল ৯ ঘটিকার সময় জুয়েল এর ভাই নূরের নেতৃত্বে তার লোকজন গ্রামে মহড়া দেয়।এরই জবাব দিতে ছালিক এর লোকজন অবৈধ বন্দুক দিয়ে কয়েক রাউন্ড গুলি ও ককটেল ফাটিয়ে সকালের মহড়ার জবাব দেয়।এ নিয়ে অত্র এলাকার জনগণ আতঙ্কে আছে।যে কোন সময় প্রাণহানিরর মত ঘটনা ঘটতে পারে বলে জানা গেছে।

সংবাদটি 943 বার পঠিত
advertise