|

কেমন হবে রোমান্টিক রাতের ‘বিশেষ’ পোশাক?

দাম্পত্য জীবনে রাতগুলো কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা ব্যস্ত জীবনে এই রাতের বেলাতেই দম্পতিরা পান একটু অন্তরঙ্গ সময়। দুজনে গল্প হয়, ভাবের আদান-প্রদান হয়। অনুভবের সিঁড়ি বেয়ে আসে রোমান্টিকতা, যৌন সম্পর্ক। অনেকেই মনে করেন বিবাহিত হয়ে গেলেই বুঝি যৌন সম্পর্কের ক্ষেত্রে বাড়তি যত্নের প্রয়োজন নেই। ধরে নেন স্বামী বা স্ত্রী তো আছেই, যৌন সম্পর্ক হবেই। জেনে রাখুন, যৌন আকর্ষণ কখনোই বিনা কারণে তৈরি হয় না। বরং বিয়ের বয়স যত বাড়ে, যৌন আকর্ষণ ততটাই কমতে থাকে। তাই বিয়ের কিছু বছর পরেও রোমান্টিকতা ধরে রাখতে নিজের প্রতি মনোযোগ দেয়া চাই একটু বেশি। আপনি যদি নিজেকে ভালোবাসেন, তাহলে সঙ্গীও আপনাকে ভালবাসবে।

আমাদের আজকের ফিচারের বিষয় এইসব রোমান্টিক রাতগুলোর সাজ-পোশাক। সারাদিন যেসব পোশাক পরিধার করেন, রাতের আরামদায়ক পরিবেশে নিশ্চয়ই সেগুলো চলবে না। আবার বেশি আরাম খুঁজতে গিয়ে একদম আকর্ষণহীন পোশাক বেছে নিলেও হবে না। তাই নারী ও পুরুষ, উভয়ের জন্যেই পোশাকের টিপস নিয়ে আজকের ফিচার।

পুরুষের পোশাক

পুরুষ মানুষ একটা কিছু পরিধান করলেই চলে, সেই ধারণা এখন অচল। পুরুষ যেমন নারীর সৌন্দর্যকে গুরুত্বের সাথে নিয়ে থাকে, নারীরাও ঠিক তাই। লুঙ্গি পরে খালি গায়ে বসে থাকা একজন পুরুষের চাইতে স্মার্ট পোশাকের একজন পুরুষকে অনেক বেশি আকর্ষণীয় মনে হবে যে কোন নারীর চোখেই। তাই প্রিয় পুরুষ, নিজের দিকে মনযোগ দিতে ভুলবেন না।

রাতে পরার জন্য বেছে নিন হালকা পোশাক। পাতলা কাপড়ের তৈরি ট্রাউজার কিংবা কোয়াটার প্যান্ট পরতে পারেন। খালি গায়ে থাকবেন না বা স্যান্ডো গেঞ্জি পরবেন না। রাতে পরার জন্য চমৎকার সব স্লিভলেস টি শার্ট পাওয়া যায়, যেগুলো একই সাথে আরামদায়ক ও স্টাইলিশ। বেছে নিন ভালো মানে বক্সার। লক্ষ্য রাখুন গায়ে যেন ঘাম বা অন্য কোন কিছুর দুর্গন্ধ না থাকে। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে হয়ে উঠুন আধুনিক।

নিজের জন্য স্টাইলিশ রাত পোশাক কিনতে চাইলে যেতে পারেন রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিং মল , যমুনা ফিউচার পার্কে। এছাড়াও ইনফিনিটি, ওয়েস্টেক্স, মেন্স ক্লাব, এক্সটেসি, পেবেলস ইত্যাদি যে কোন শো রুমে গেলেই পেয়ে যাবেন দারুণ সব রাত পোশাক। একটু দেখে কিনলে ধানমণ্ডি হকার্স মার্কেট বা বঙ্গবাজার থেকেও পেয়ে যাবেন চমৎকার পোশাক।

নারীদের জন্য

অনেকেই মনে করেন সুন্দর রাতপোশাক বুঝি কেবল স্লিম মেয়েদের জন্যেই। ধারণা কিন্তু একদম ঠিক নয়। আপনার ওজন যাই হয়ে থাকুক না কেন, আপনি চাইলেই নিজের শরীরের সাথে মানানসই রাতপোশাক কিনে বা বানিয়ে নিতে পারেন।

সুন্দর অন্তর্বাস বেছে নেয়াও জরুরী। ছবি :সংগৃহীত

অনেকেই ম্যাক্সি পরতে ভালোবাসেন। সেক্ষেত্রে ছোট হাতা ও পাতলা কাপড়ের ম্যাক্সি বেছে নিন। ডিজাইন বেছে নিন আকর্ষণীয়, রঙ হবে নরম। এছাড়াও নাইটি পরতে চাইলে সিল্ক বা লেসের নাইটি বেছে নিতে পারেন। বিভিন্ন শপেই এখন এগুলো ট্রায়াল করে দেখে কেনার ব্যবস্থা আছে। তাই ভালো মত দেখেই ক্রয় করুন।

ম্যাক্সি নিজে না বানাতে চাইলে কিনতে পারেন। সেক্ষেত্রে আড়ং সহ দেশি সব বুটিকেই কমবেশি পাবেন। এছাড়া যে কোন মার্কেটেই নারীদের ম্যাক্সি কিনতে পাওয়া যায়। স্টাইলিশ নাইটি চাইলে বসুন্ধরা সিটি ও যমুনা ফিউচার পার্কে আছে চমৎকার সব দোকান। এসব দোকানে পুরুষের প্রবেশ নিষিদ্ধ। তাই সময় নিয়ে নিঃসংকোচে করতে পারবেন কেনাকাটা। দেশি বিদেশি নানান রকম পণ্যের সমাহার পাবেন। আর নিজের সাইজ জানা থাকলে রাজধানীর ধানমন্ডি হকার্স মার্কেটের ভেতরের কিছু দোকান থেকেই কিনতে পারবেন। পাশপাশি আকর্ষণীয় অন্তর্বাস কিনতে ভুল করবেন না।

রোমান্সে ভরে উঠুক রাতগুলো। শুভকামনা।

সংবাদটি 83 বার পঠিত
advertise