|

একের পর এক রেকর্ড গড়ে যাচ্ছে পাকিস্তান

সুরমা ভিউ।। জিম্বাবুয়ে সফরে একের পর এক রেকর্ড গড়ে যাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। দলের রেকর্ডের পাশাপাশি ব্যক্তিগতভাবেও রেকর্ড গড়ে যাচ্ছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা।

শুক্রবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চতুর্থ ওয়ানডে ম্যাচে ৩৯৯ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। একদিনের ক্রিকেটে পাকিস্তানের এটা সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। এদিন ২৪৪ রানের রেকর্ড জয় পেয়েছে পাকিস্তান। ওয়ানডে ক্রিকেটে রানের বিবেচনায় পাকিস্তানের এটা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জয়। এর আগে ২০১৬ সালে ৩৩৮ রান করে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ২৫৫ রানের জয় পেয়েছিল পাকিস্তান।

শুধু তাই নয়, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৫৮টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ৫১ ম্যাচে জয় পেয়েছে পাকিস্তান। হেরেছে মাত্র ৪ ম্যাচে। টেস্ট খেলুড়ে দলগুলোর মধ্যে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডেতে প্রায় ৯২ শতাংশ (৯১.৯৬) জয় পাকিস্তানের।

এছাড়া শ্রীলংকার বিপক্ষে ১৫৩ ম্যাচ খেলে ৯০টি ম্যাচে জয় (৫২.৯৭ শতাংশ)পায় পাকিস্তান। চীরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ১২৯ ম্যাচ খেলে ৭৩টিতে জয় (৫৮.৪০ শতাংশ) পায় পাকিস্তান।

এদিন জিম্বাবুয়ের বুলাওয়ে স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ব্যাট করে পাকিস্তান। উদ্বোধনীতে ৩০৪ রানের জুটি গড়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন ইমাম-উল-হক ও ফখর জামান। তাদের গড়া জুটিই ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে উদ্বোধনীতে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড।

এর আগে ২০০৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে উদ্বোধনীতে ২৮৬ রানের জুটি গড়েছিলেন শ্রীলংকান ক্রিকেটার সনাৎ জয়সুরিয়া ও উপল থারাঙ্গা। এক যুগ আগে তাদের গড়া সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন পাকিস্তানের দুই উদীয়মান ব্যাটসম্যান ইমাম-উল-হক ও ফখর জামান। তবে ওয়ানডেতে যে কোনো উইকেটে পাকিস্তানের এটি সর্বোচ্চ রানের জুটি।

এদিন রেকর্ড জুটি গড়ার পথে ইমাম-উল-হক এবং ফখর জামান দু’জনেই তুলে নেন সেঞ্চুরি। ১২২ বলে আট বাউন্ডারিতে ১১৩ রান করে থামেন ইমাম-উল-হক।

ফখর জামান তো নিজেকেও ছাড়িয়ে যান। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলমান এই সফরে গত সোমবার বুলাওয়ের এই মাঠেই নিজের ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ ১১৭ রান করেছিলেন তিনি। এদিন তো নিজেকেও ছাড়িয়ে যান।

ইনিংসের শুরু থেকে শেষ বল পর্যন্ত খেলে পাকিস্তানের হয়ে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে ডবল সেঞ্চুরি করেন ফখর জামান। তার ১৫৬ বলে ২৪ চার ও ৫ ছক্কায় গড়া ২১০ রানের ইনিংসে ভর করে ১ উইকেটে ৩৯৯ রানের পাহাড় গড়ে পাকিস্তান।

ডবল সেঞ্চুরি করে সাইদ আনোয়ারের রেকর্ড ভাঙেন ফকর জামান। পাকিস্তানের হয়ে এর আগে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংসের মালিক ছিলেন সাইদ আনোয়ার। তিনি ১৯৯৭ সালে ভারতের বিপক্ষে ১৯৪ রান করেছিলেন।

৪০০ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করে শাদাব খানের গুগলিতে ৪২.৪ ওভারে ১৫৫ রানেই আলআউট হয়ে যায় স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন ডোনাল্ড ত্রিপানো। এছাড়া ৩৭ রান করেন সাবেক অধিনায়ক এল্টন চিগুম্বরা। পাকিস্তানের হয়ে ৮.৪ ওভারে ২৮ রানে ৪ উইকেট নেন শাদাব খান।

২৪৪ রানে জয় লাভ করে পাকিস্তান।

এই জয়ের মধ্য দিয়ে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের মধ্য দিয়ে ৪-০তে এগিয়ে গেল সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান ক্রিকেট দল।

সংবাদটি 104 বার পঠিত
advertise