|

মৌলভীবাজারের মঈনুদ্দীনকে অপহরণ: নাটোরের বড়াইগ্রামে আটকে রেখে মুক্তিপণ দাবি

মোঃ তাজুদুর রহমানঃ

মৌলভীবাজারের শাহবন্দর (ফতেপুর) মুন্সীবাড়ীর মরহুম আব্দুল মুক্তাদির এর ২য় পুত্র ডাঃ মঈনুদ্দিন আহমদ (আরএমপি)-কে অপহরণ ও নাটোরের বড়াইগ্রামে আটকে রেখে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করেছে অপহরণকারীরা।

অপহৃত ডাঃ মঈনুদ্দিন আহমদের স্বজনরা মোবাইল ফোনে বিষয়টি নাটোরের পুলিশ সুপারকে অবহিত করেছেন।

অপহৃত ডাঃ মঈনুদ্দিন আহমদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে- একটি প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণের জন্য গতকাল ২০ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৭টার দিকে তিনি ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন (তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী)।

এরপর  আজ ২২ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে তিনি তার ভাতিঝিকে ফোন করে জানান- অজ্ঞাতনামা লোকেরা তাকে অপহরণ করে নাটোর জেলার বরাইগ্রামে অজ্ঞাত স্থানে আটকে রেখেছে।

বিকাশ করে তাদেরকে ১ লাখ দিলে তাকে ছেড়ে দেবে। নতুবা তার বিপদ হবে। সেই থেকে একাধিক স্বজন তাঁর সাথে যোগাযোগ করলে সবাইকে একই কথা জানিয়ে বলেন- অন্য কোন পদক্ষেপ নিলে তাঁর বিপদ হবে। টাকা অন্য কোনভাবে দিলে হবেনা।

১ লাখ টাকা বিকাশ করলে তাকে মুক্তি দেয়া  হবে। বলেই মোবাইল ফোনের সংযোগ কেটে দেন। এরপর অপহৃত ডাঃ মঈনুদ্দিন আহমদের স্বজনরা বিষয়টি নাটোরের পুলিশ সুপারকে জানালে, তিনি এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বরাইগ্রাম থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

সর্বশেষ- জুমআর নামাজের পর অপহৃত ডাঃ মঈনুদ্দিন আহমদ তার জামাতাকে জানিয়েছেন- অপহরণকারীরা তাকে বলেছে, “বেলা ৩টার মধ্যে ১ লাখ টাকা বিকাশ না করলে তাকে ইয়াবা টেবলেটসহ পুলিশে হস্তান্তর করা হবে”। তার স্বজনদের পক্ষ থেকে এ বিষয়টিও নাটোরের পুলিশ সুপারকে জানানো হয়েছে। এ সংবাদ পরিবেশন পর্যন্ত এ অপহরণ ঘটনা সম্পর্কে নিশ্চিতভাবে জানা সম্ভব হয়নি। অপহৃতর সাথেও আর যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি এবং তার ভাগ্যে কি ঘটেছে সে সম্পর্কেও কোনকিছু জানা যায়নি। এমতাবস্থায়, চরম উদ্বেগ উৎকণ্ঠার মধ্যে রয়েছেন তার স্বজনরা।

সংবাদটি 27 বার পঠিত
advertise