|

নবনিযুক্ত কাস্টম্স কমিশনারের সাথে সিলেট চেম্বার নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

সুরমা ভিউ।।  ২৩ অক্টোবর ২০১৮ইং, মঙ্গলবার, সন্ধ্যা ৬:৩০ ঘটিকায় চেম্বার কার্যালয়ে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে কাস্টম্স, এক্সাইজ এন্ড ভ্যাট কমিশনারেট, সিলেট এর নবনিযুক্ত কমিশনার জনাব গোলাম মোঃ মুনির এর সাথে চেম্বার নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট চেম্বারের সভাপতি জনাব খন্দকার সিপার আহমদ এর সভাপতিত্বে সভায় নবনিযুক্ত কাস্টম্স কমিশনার বলেন, সরকারের ভ্যাট, ট্যাক্স ও অন্যান্য রাজস্ব প্রদানে সিলেটের ব্যবসায়ীরা যথেষ্ট সচেতন। এক্ষেত্রে সিলেট চেম্বার অব কমার্সের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের সাথে রাজস্ব আদায়কারী বিভাগসমূহের ঘনিষ্ট সম্পর্ক থাকা উচিত, অন্যথায় রাজস্ব আদায়ে বিঘœ ঘটে। তিনি সিলেটে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণে সিলেট চেম্বার অব কমার্স ও ব্যবসায়ীদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি বলেন, ভ্যাটের পরিধি বৃদ্ধি ও এ বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সচেতনতা বৃদ্ধিতে কর্মশালা আয়োজনের কোন বিকল্প নেই বিধায় এ ব্যাপারে আগামীতে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন করা হবে। তিনি আমদানী-রপ্তানীকারকদের সুবিধার্থে এলসি স্টেশনগুলোতে সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা হবে জানান। এছাড়াও তিনি তার দায়িত্বকালে ব্যবসায়ীরা রাজস্ব প্রদানে যাতে কোন ধরণের হয়রানির শিকার না হন সেবিষয়ে লক্ষ্য রাখার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি জনাব খন্দকার সিপার আহমদ মতবিনিময় সভায় মিলিত হওয়ার জন্য নবনিযুক্ত কাস্টম্স কমিশনারকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, সিলেট চেম্বার অব কমার্স ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সংরক্ষণের পাশপাশি সরকারের ভ্যাট, ট্যাক্স প্রদানে ব্যবসায়ীদের উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে কাজ করে থাকে। সিলেট চেম্বারের এসব কার্যক্রমের জন্য ইতোপূর্বে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের পক্ষ থেকে একাধিকবার সিলেট চেম্বারকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। তিনি রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণে নিয়মিত ভ্যাট প্রদানকারী ব্যবসায়ীদের উপর চাপ সৃষ্টি না করে ভ্যাটের পরিধি বৃদ্ধি করার আহবান জানান। এছাড়াও তিনি ব্যবসায়ীদের সাথে কোন ধরণের ভুল বোঝাবুঝি সৃষ্টি হলে তা চেম্বারের মাধ্যমে নিরসনের অনুরোধ জানান। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন কাস্টম্স, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, সিলেট এর অতিরিক্ত কমিশনার জনাব মোহাম্মদ নেয়াজুর রহমান, যুগ্ম কমিশনার জনাব মোহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন পাহলোয়ান, সহকারী কমিশনার (সদর-১) জনাব মোঃ আহসান উল্লাহ্, সহকারী কমিশনার (কাস্টম্স) জনাব আহমেদুর রেজা চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (এয়ারপোর্ট) জনাব নাজমুল হাফিজ আহমেদ, সহকারী কমিশনার (আবগারি ও ভ্যাট) জনাব মোঃ জাকারিয়া, সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি জনাব মাসুদ আহমদ চৌধুরী, সহ সভাপতি জনাব মোঃ এমদাদ হোসেন, পরিচালক জনাব পিন্টু চক্রবর্তী, জনাব মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান (ভূট্টো), জনাব আমিরুজ্জামান চৌধুরী, জনাব এহতেশামুল হক চৌধুরী, জনাব মুকির হোসেন চৌধুরী, জনাব আব্দুর রহমান, জনাব চন্দন সাহা, জনাব ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, জনাব মোঃ আব্দুর রহমান জামিল, জনাব হুমায়ুন আহমেদ, আলহাজ্ব মোঃ আতিক হোসেন, জনাব মুজিবুর রহমান মিন্টু, সিলেট জেলা সিএন্ডএফ গ্রুপের সভাপতি জনাব শাহ্ আলম, সাধারণ সম্পাদক জনাব মোঃ বশিরুল হক, ভোগ্য পণ্য পরিবেশক গ্রুপের সভাপতি জনাব মোঃ বদরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক জনাব মোঃ আামিনুজ্জামান জোয়াহির, হোটেল এন্ড গেস্ট হাউস ওউনার্স গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক জনাব নওশাদ আল মুক্তাদির, সিলেট ক্যাটারার্স গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক জনাব সালাউদ্দিন চৌধুরী, বিসিক শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি জনাব তারেক আহমদ, সেক্রেটারী জনাব আলীমুল এহছান চৌধুরী, কমিউনিটি সেন্টার মালিক সমিতির সভাপতি জনাব সাদিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আবু মুত্তাকিম, সিলেট চেম্বারের সদস্য জনাব শফিকুল ইসলাম, জনাব মোঃ হাফিজুর রহমান, জনাব মোঃ মোতাহির আলী প্রমুখ।

সংবাদটি 72 বার পঠিত
advertise