|

যে কারণে সবসময়ই সেরা রোনালদো

রিয়াল মাদ্রিদে ছিলেন ফর্মের তুঙ্গে। গোল করাটাকে এক রকম মুড়ি-মশলা বানিয়ে ফেলেছিলেন তিনি। জুভেন্টাসে আসার পর শুরুতে ছন্দ ছিল না তার। কিন্তু তিনি যে ক্রিস্টিয়ানো রোনালেদো। তাই ঠিকই নিজের জাত চেনাতে করেছেন আবারও। নতুন করে তার এই নজর কাড়া ফর্মে সিরিএ ও চ্যাম্পিয়নস লিগে পয়েন্ট টেবিলে শক্ত অবস্থানে আছেন জুভরা।

চলতি বছরের ৯ জুলাই রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দেন সিআরসেভেন। সূচনালগ্নে তাদের সঙ্গে মানিয়ে নিতে সমস্যা হয় তার। তবে এখন পুরোদমে সেট হয়ে গেছেন পতুর্গিজ যুবরাজ। তার নৈপুণ্যে চ্যাম্পিয়নস লিগে সুবিধাজনক অবস্থানে আছেন ইতালি চ্যাম্পিয়নরা।

এ বিষয়ে আলোকপাত করে জুভেন্টাসে রোনালদোর সতীর্থ ক্যানসেলো বলেন, ‘রোনাল্ডোর ইউরোপসেরা টুর্নামেন্টের শিরোপা ‘লাক’ নিয়ে কারও সন্দেহ নেই। রিয়ালকে রেকর্ড টানা তিনবার এটি জিতিয়ে এসেছেন তিনি। এবার ইউরোপিয়ান লিগে সফল হতে পারে জুভেন্টাস।’

এই সিজনেই ইন্টার মিলান থেকে ধারে জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছেন ক্যানসেলো। ২৪ বছর বয়সী এ তরুণ বলেন, আমি এমন একজন ফুটবলারকে নিয়ে কথা বলছি, যিনি সবার থেকে আলাদা। তার সঙ্গে কারও তুলনা হয় না। সব জায়গায় তিনি পার্থক্য গড়েন দেন।

রোনালদোর জন্য তুরিনের ওল্ড লেডিদের শক্তি আরো বৃদ্ধি পেয়েছে বলে তিনি জানান, ‘জুভেন্টাস সবসময় সেরা ক্লাব। রোনালদো আসায় শক্তিমত্তা আরও বেড়ে গেছে। চ্যাম্পিয়নস লিগে আমরাই ফেভারিট। তার দাবি, জিততে ও সতীর্থদের জেতাতে সহায়তা করতেই জন্ম ক্রিস্টিয়ানোর।

সংবাদটি 23 বার পঠিত
advertise