|

দিরাই শাল্লায় নৌকা চান অনেকেই ধানের শীষ চান দুই

মো, নাইম তালুকদার : সুনামগঞ্জ থেকে ::

বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিম ও একুশে পদক প্রাপ্ত পন্ডিত রামকানাই দাসের এলাকা হাওর বাওর বিল ঝিল সবুজ গাও গ্রাম নিয়ে গঠিত সুনামগঞ্জ ২ সংসদীয় আসন। স্বাধীনতার পর থেকে এ আসনে ক্ষমতাসীন দলের এমপি বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ বাবু সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত অনেক বার জয়যুক্ত হয়েছে বলে এলাকায় এটি আওয়মীলীগের লাকি আসন হিসেবে পরিচিত। যে কারণে সবার কৌতূহল থাকে এ আসনটির দিকে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এখনো কিছু সময় বাকি থাকলেও দলীয় মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। ,

বর্তমানে এ আসনের সংসদ সদস্য হলেন , এ আসনের আট বারের নির্বাচিত বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ বাবু সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের সহর্ধমিনী ড. জয়া সেন গুপ্তা । গত বছর সুরঞ্জিত বাবুর প্রয়ানের পর ,উপনির্বাচনে তিনি নৈৗকা প্রতিক নিয়ে এ আসনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। আগামী নির্বাচনেও তিনি দলীয় মনোনয়ন পাবে বলে জানিয়েনে দলের নেতৃবৃন্দ । তবে এবার নৌকার মাঝি হতে দিরাই ও শাল্লা উপজেলা থেকে সব মিলিয়ে সাত/আটজন নেতা মাঠে নেমেছেন। অন্যদিকে বিএনপি অনেকটাই নির্ভার। একক প্রার্থী হিসেবে বিএনপির ভরসা সাবেক সংসদ সদস্য দলের জেলা শাখার সাবেক আহবায়ক কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য নাছির উদ্দিন চৈৗধূরীর উপর ।

অপর দিকে যুক্তরাজ্য বিএনপি সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রবিণ রাজনীতিবীদ ও সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি মরহুম আব্দস শহীদ চৈৗধূরীর পুত্র এডভোকেট তাহির রায়হান চৈৗধূরী বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন । দলীয় নির্দেশ অনুযায়ী বিভিন্ন সময় তার একটি অনুসারীদল সভা ,সমাবেশ ,ও বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে যাচ্ছে । ইতিমধ্যে তার সমর্থক গোষ্ঠি দিরাই উপজেলা বিএনপির একাংশ তাহির রায়হানের পক্ষে আগামী একাদশ নির্বাচনে ধানের শীষের মনোয়ন প্রত্যাশী বলে দিরাই Ñ শাল্লার প্রত্যেকটি গ্রামে গ্রামে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন । দিরাইÑশাল্লায় প্রতিনিয়ত তাঁর একটি সমর্থক গোষ্ঠি দলেরে প্রধাণ কারাগারে থাকা খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আন›দোলন সংগ্রাম করে আসছে ।
গত উপ- নির্বাচনে পরাজিত সন্ত্রত প্রার্থী ছায়েদ আলী মাহবুব হোসেন রেজু আগামী একাদশ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী বলে জানিয়েছেন।তিনি ইতিমধ্যে শেখ হাসিনা সরকারে বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড ধরে তুলে ,দিরাই – শাল্লার প্রধাণ প্রধাণ সড়কে তরুন সাজিয়েছেন ।

আওয়ামী লীগ : আগামী একাদশ নির্বাচনকে সামনে রেখে এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ড তদারকিতে সংসদ সদস্য ড. জয়াসেন গুপ্তার বিশেষ তৎপরতা ও গণসংযোগ বেশ লক্ষ করা যাচ্ছে। এখন ঘন ঘন এলাকায় অবস্থান করে তিনি নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন পর্যায়ে খোঁজখবর নেওয়ার চেষ্টা করছেন। যদিও বর্তমানে ওই দুই উপজেলা আওয়ামীলীগের অনেক নেতার সঙ্গে তাঁর দূরত্ব ছিল , এখন তিনি সবার সাথে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ করছেন।

ড. জয়াসেন গুপ্তা বলেন, বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ আমার স্বামী বাবু সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের অসমাপ্ত কাজকে সমাপ্ত করতে এ আসনে আমি প্রতিনিধিত্ব করতে চাই। বৃহত্তর দিরাই-শাল্লার হাওর পাড়ের মানুষের কল্যাণে কাজ করা আমার লক্ষ্যে ও মূল উদ্দেশ্য । এবার তো আমার দিরাই Ñ শাল্লা এলাকায় প্রায় হাজার কোটি টাকার উন্নয়নকাজ বাস্তবায়িত হচ্ছে। তিনি এলাকায় গ্রামীণ যোগাযোগ অবকাঠামো, পাহাড়ি ঝরের আগাম বন্যা থেকে হাওর পাড়ের মানুষদেরকে রক্ষার জন্য নেওয়া পদক্ষেপ, গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া এবং হতদরিদ্রদের উন্নয়নে বিশেষ পদক্ষেপের চিত্র তুলে ধরেন।

সংসদ সদস্য বলেন, আওয়ামী লীগের নিবেদিতপ্রাণ নেতকর্মীসহ যুবলীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগ, ছাত্রলীগ সহ আমার নির্বাচনী এলাকার বেশির ভাগ নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষজন আমার সঙ্গে আছে। যে কারণে আমি এবারও দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী। আশা করি জননেত্রীকে আবারও আসনটি উপহার দিতে পারব।

এ আসনে আওয়ামী লীগ থেকে আরেক জোরালো মনোনয়নপ্রত্যাশী কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্বাহী সদস্য ও বাংলাদেশ জাতিয় সংসদ নির্বাচনের ২০১৮ এর আইন ও বিধি উপকমিটির সদস্য ব্যারিস্টার অনকুল তালুকদার ডাল্টন । বিগত নির্বাচনগুলোতে মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ায় আগামী নির্বাচনে তিনি দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী। এলাকায় তিনি বর্তমান সরকার শেখ হাসিনার উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড তুলে ধরে সেভাবেই গণসংযোগ করে চলেছেন।

তিনি বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে শেখ হাসিনা সরকারের পক্ষে মাঠে কাজ করছি। মাননীয় প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আমি নৈৗকা প্রতিকের প্রত্যাশী। দিরাই Ñ শাল্লার সাধারণ মানুষও আমাকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে চায়।

এ আসনে নৌকার মনোনয়ন পেতে দীর্ঘদিন ধরে মাঠে আছেন সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক ও মুক্তিযোদ্বা পরিবারে সন্তান শহীদ তালেবের আপন ভাই এডভোকেট সামছুল ইসলাম । তিনি বিভিন্ন সমস্যায় মানুষের কাছাকাছি থাকতে চেষ্টা করছেন। ফেসবুকেও চলছে তাঁর সরব প্রচার।

এডভোকেট সামছুল ইসলাম বলেন, ছাত্রলীগ থেকে রাজনীতি করে আসছি। সামাজিক ও বিভিন্ন সেবামূলক কর্মকান্ডে আমি জড়িত। বর্তমান সরকার পরিবেশ বান্দব সরকার । তা ছাড়া আওয়ামী লীগ এবার ক্লিন ইমেজের লোক খুঁজছে। পরিচ্ছন্ন ইমেজের জন্য আমি দলীয় মনোনয়ন পাব বলে আশা করি।

এডভোকেট অবনী মোহন দাস জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন সভা-সমাবেশে তিনি প্রার্থী হতে চান বলে ঘোষণা দিয়েছেন। করছেন জনসংযোগ, ঘুরছেন দলের হাইকমান্ডের নেতাদের কাছে।—–

যুক্তরাজ্য প্রবাসী ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী শ্রমিকলীগের কার্যনির্বাহী সভাপতি এডভোকেট শামছুল হক , সম্প্রতি কর্মী সমাবেশে ও সমাজের উন্নয়ন মূলক কাজের মধ্য দিয়ে সংসদ সদস্য পদে তিনি মনোনয়নপ্রত্যাশী হিসেবে জানান দিয়েছেন। সেই সঙ্গে পোস্টার করে ভোটার ও কর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করে যাচ্ছেন।

এডভোকেট শামছুল হক বলেন, আমার রাজনৈতিক জীবনে দলের নাম বাঙ্গীয়ে কোন কিছু করিনি । ঘুষ-দুর্নীতি আমাকে স্পর্শ করতে পারেনি। আমি আশাবাদী, জোট আমাকে মনোনয়ন দিলে এ আসনে নৌকার বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।

লন্ডন আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা কমিটির অন্যতম সদস্য, সিলেট এমসি কলেজের সাবেক ভিপি শিক্ষাবীদ ইকবাল হোসাইন মনোনয়ন চান। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ এখন সৃষ্টিশীল-সৎ তরুণ নেতৃত্বকে এগিয়ে নিচ্ছে। দিরাই Ñ শাল্লা আসনের বিভিন্ন এলাকার ভোট বিশ্লেষণ করে এবং কৌশলগত দিক বিবেচনায় দেখা গেছে, আমি যে এলাকার বাসিন্দারা শিক্ষিত লোকের নেতৃত্ব চান । তাই মানুষজনের বিবেচনা অনুযায়ী আমার পক্ষে আওয়ামী লীগের বিজয় ছিনিয়ে আনা অত্যন্ত সহজ।

দিরাই উপজেলা জাতীয় সমাজতান্ত্রিক (জাসদ-ইনু) দলের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাস আমিন জাসদ থেকে তিনি নির্বাচন করবে বলে আমিনুল ইসলাম আমিন জানিয়েছেন । বিগত কয়েক মাস পূর্বে জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু সিলেটের সার্কিট হাউজে আমিনুল ইসলাম আমিনকে জাসদ থেকে দিরাই –শাল্লার প্রার্থী ঘোষণা করেন ।
উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন বলেন, আমি জাসদ থেকে আগামী একাদশ নির্বাচনে দলীয়ভাবে মনোনয়ন পেয়েছি , দলের সভাপতি আমার নাম ও ঘোষনা করেছেণ । আমি বিগত উপনির্বানে আমার দল থেকে মনোয়ন পেয়েছিলাম । এবং জাসদ থেকে নির্বাচন করতে ও চাচ্ছিলাম ,কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশে নৈৗকার জন্য আমি আমার মনোয়ন প্রত্যাহার করি । কিন্তু আজ পর্যন্ত নৈৗকার বিজয়ী প্রার্থীর দেখা পেলাম না । তাহার এই কর্মকান্ডে দিরাই Ñশাল্লাবাসী নারাজ । আমার দল আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে ,আমি আগামী নির্বাচনে মশাল প্রতিক নিয়ে সকলের সহযোগীতায় নির্বাচন করবো ।

আরেক মনোনয়নপ্রত্যাশী কেন্দ্রীয় বাসদ নেতা আজহার চৈৗধূরী । তিনি বলেন, দল যদি শিক্ষিত, মার্জিত ও জনপ্রিয় যুবক হিসেবে প্রার্থী মূল্যায়ন করে তাহলে দল আমাকেই মনোনয়ন দেবে।

বিএনপি জোট : মোটামুটি একক প্রার্থী নিয়ে অনেকটা খোশমেজাজে রয়েছে বিএনপি। এ আসনে দলটির একক প্রার্থী একবারের সংসদ সদস্য জেলা বিএনপির আহবায়ক কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য নাছির উদ্দিন চৈৗধূরী , বিগত ১৯৯৬ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পাটি থেকে লাঙ্গন প্রতিক নিয়ে জয়ী হন । পরে তিনি একাধিক বার পরাজিত হলেও এ আসনের প্রত্যন্ত এলাকার নেতাকর্মীদের সঙ্গে রয়েছে তাঁর সার্বক্ষণিক যোগাযোগ। দলের কাঠামো খুবই শক্ত থাকায় আগামী নির্বাচনে তাঁকে পরাজিত করা খুবই কঠিন বলে মনে করে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা
তবে অপর দিকে বিএনপি থেকে এবার মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি মরহুম আব্দুস শহীদ চৈৗধূরীর পুত্র যুক্তরাজ্য বিএনপির যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট তাহির রায়হান চৈৗধূরী পাবেল । সংসদ নির্বাচনেও জোট থেকে মনোনয়ন না পেলে তিনি খালেদা জিয়ার হাতকে শক্তিশালী করতে নির্বাচনের মাঠে থাকবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। সে জন্য তিনি জনসংযোগ করে যাচ্ছেন।

গণতন্ত্রী পার্টি : গণতন্ত্রী পার্টি থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন সিলেট জেলা গণতন্ত্রী পার্টির যুগ্ন- সাধারণ সম্পাদক , গোলজার আহমেদ । তিনি কিছু দিন যাবত দিরাই-শাল্লার প্রত্যন্ত অঞ্চরে জনসংযোগ করে আসছেন ।তিনি বলেন, আমি তৃণমূল মানুষের কাছে যাচ্ছি এবং সাধারন মানুষের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। মানুষ আজ পরিবর্তন চায়। গতানুগতিক ধারার রাজনীতিতে মানুষ হতাশ। দিরাই শাল্লার মানুষ এই ধারার পরিবর্তন চায়। গণতন্ত্রী পার্টির পক্ষ থেকে পরিবর্তনের ডাক নিয়ে, সুবিধা বঞ্চিত মানুষের কথা বলতে, আমি দিরাই-শাল্লা বাসীর দরজায় হাজির হয়েছি

সংবাদটি 117 বার পঠিত
advertise