দিরাইয়ে তিন আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

স্টাফ রিপোর্টার ।। সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের রাজনগর (হালেয়া) গ্রামে প্রবাসীর জায়গা দখলের চেস্টা ও বাড়ীতে গুলি ভর্ষনের মামলায় তিন আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন সুনামগঞ্জ নিন্ম আদালত।

গত বছরের জুন মাসের ১৩ তারিখে রাজনগর গ্রামের লন্ডন প্রবাসী মো: আব্দুল হালিম এর বাড়িতে গুলি বর্ষনের ঘটনায় তিন আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন সুনামগঞ্জ নিন্ম আদালত।

আসামি তিন জন হচ্ছেন গুলি বর্ষনের ঘটনায় নির্দেশ দানকারী নূর মিয়া পিতা আব্দুল কাইয়ুম, জিয়াউর পিতা ময়না মিয়া, মোহন মিয়া পিতা লাল মিয়া, এই তিন জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন নিম্ন আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্ত সিনহা ও এ জি এম মাসুদ।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, যে জায়গা নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে সেই জায়গাটির রেকর্ডিয় মালিক প্রবাসী মো:আব্দুল হালিম কিন্তু তিনি স্বপরিবারে প্রবাসে থাকার সুবাধে বিগত প্রায় ৩/৪ বছর যাবত নুর মিয়া গংরা জায়গাটি ভোগ করে আসছিলেন, কিন্তু গত বছরের জানুয়ারী মাসে রেকর্ডিয় মালিক লন্ডন প্রবাসী আব্দুল হালিম বিষয়টি জানতে পারেন এবং বিষয়টি জানার পরে প্রবাসী আব্দুল হালিম নুর মিয়া গংদের সাথে প্রায় ৫ মাস পর্যন্ত যোগাযোগ করেন বিষয়টি আপোষে মিমাংসা করার জন্য। কিন্তু নুর মিয়া গং শেষ করছি-করবো বলে বলে সময়ক্ষেপন করতে থাকেন।

অনেক চেষ্টার পরে অতিষ্ঠ হয়ে প্রবাসী আব্দুল হালিম বাধ্য হয়েই কয়েকজন সার্ভেয়ার দারা জায়গা পরিমাপ করায়ে গ্রামের গন্যমান্য কয়েক জন মুরুব্বিয়ানদেরকে সামনে রেখে তার নিজের রেকর্ডিও জায়গা পর্যন্ত সীমানা নির্ধারণ করে খুটি দিয়ে দেন।

এই সব সিমানার খুটি শক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে উপড়ে ফেলতে জিয়াউর, মোহন ও নুর মিয়ার নেতৃত্বে প্রায় ১৬ জন লোক দিন-দুপুরে বন্দুকসহ ভিবিন্ন অবৈধ অশ্র নিয়ে প্রবাসী আব্দুল হালিমের বাড়িতে গুলি বর্ষন শুরু করে।
এ সময় জিয়াউর এর ছুড়া গুলিতে চুখে আঘাত প্রাপ্ত হয় কলেজ ছাত্র আব্দুল আমিন ও মোহনের ছুরা গুলিতে আহত হয় কিশর ইব্রাহিম।

এ ব্যপারে সুনামগঞ্জ আদালতে আহত আব্দুল আমিনের পিতা সুনু মিয়া বাদী হয়ে ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করলে আসামি ১৩ জনের জামিন হলেও ৩ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন সুনামগঞ্জ নিম্ন আদালত।

এ ব্যাপারে প্রবাসী আব্দুল হালিম সুরমা ভিউ  প্রতিবেদককে জানান যে প্রকাশ্যে দিবালোকে আমার বাড়ীতে বন্দুক দিয়ে গুলি বর্ষন করলেও অদৃশ্য কারনে দিরাই থানা আমাদের মামলা নেয়নি, পরে আমরা বাধ্য হয়ে কোর্টে মামলা দায়ের করলে আদালত আসামি তিন জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

কিন্তু অজ্ঞাত কারনে পুলিশ আসামিদেরকে গ্রেফতার না করায় আসামিরা আরো বেপরোয়া হয়ে উটেছে এবং বাদী পক্ষকে বিভিন্ন ভাবে ভয়-ভীতি সহ প্রাননাশের হুমকি দিয়ে আসছে, বিশেষ করে এখন এই কৃষি কাজের মৌসুমে আমার মামলার বাদী পক্ষের লোকজন কৃষি কাজ করতে বাড়ী থেকে বাহির হলেই রাস্তা ঘাটে এবং কৃষি জমিতে কাজ করতে গেলে আসামিরা অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র প্রদর্শন করে ভয় ভিতি দেখিয়ে আসছে।

আমি এ ব্যপারে স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি দাবি জানাচ্ছি যে উল্লেখিত আসামীদের গ্রেফতার করে তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে এসে কঠিন শাস্তি প্রদানের ব্যবস্তা করার জন্য।