বিএনপি সরকারের আমলে সারের জন্য সারাদেশে কৃষকরা আন্দোলনে নামে – এড. আবু জাহির

সুরমা ভিউ::  বিএনপি’র আমলে সারের জন্য আন্দোলনরত ১৮ জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব এডভোকেট আবু জাহির।

তিনি বলেন- বিএনপি সরকারের আমলে সারের জন্য সারাদেশে কৃষকরা আন্দোলনে নামে।  তখন পুলিশ সারাদেশের ১৮ জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করে।  অথচ সেই সময় জাতির জনকের কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এলে বিনামূল্যে কৃষকদের সার দেয়ার কথা বলেছিলেন।

বাংলাদেশ কৃষক লীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) সন্ধ্যায় শহরের টাউন হল রোডস্থ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হবিগঞ্জ জেলা কৃষক লীগ আয়োজিত কেক কাটা ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন- কৃষকরা হচ্ছেন বাংলাদেশের প্রধান শক্তি। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের পূর্বে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সারাদেশে কৃষকদের সংগঠিত করার উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ কৃষক লীগ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। সেই কৃষক লীগ আজ সারাদেশে অত্যন্ত সুসংগঠিত হয়ে স্বাধীনতার পক্ষের প্রতীক নৌকার পক্ষে কাজ করছে।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ একটি বৃহৎ সংগঠন। এই সংগঠনে সকলকে রাখা সম্ভব নয়। তবে কৃষক লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ আর শ্রমিক লীগের অপর নামই হচ্ছে আওয়ামী লীগ।

বিএনপি নেতাকর্মীদের মিথ্যাচারের সমালোচনা করে এমপি আবু জাহির বলেন, আওয়ামী লীগ কখনো ভোটে পরাজিত হয়নি। পরাজিত হয়েছে ষড়যন্ত্রের কাছে। বিএনপি নেতাকর্মীরা মিথ্যা তথ্য দিয়ে জনগণকে বোকা বানিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায়। এই সংগঠনের জন্ম হয়েছিল দলছুট নেতাদের নিয়ে। তারা এখন দিশেহারা। কারণ- এতিম এবং জনগণের টাকা লুটপাটকারীরা কখনো প্রতিষ্ঠিত হতে পারে না। হবিগঞ্জে কৃষক লীগের প্রসংশা করে আগামী দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান এমপি আবু জাহির।

জেলা কৃষক লীগ সভাপতি হুমায়ুন কবীর রেজার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক শেখ মুক্তার হোসেন বেনু’র পরিচালনায় সভায় অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন জেলা কৃষক লীগের সহ সভাপতি জাকির হোসেন সেলিম, শাহজাহান চৌধুরী সেজু, এডভোকেট শফিকুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য নুরুল আমীন ওসমান, শাহীন আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শামাল হোসেন, মহিবুল হাসান তালুকদার, দপ্তর সম্পাদক মমিনুর রহমান মমিন, প্রচার সম্পাদক শেখ মো. আজমান মিয়া, অর্থ সম্পাদক আবুল কাশেম, সমবায় বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট শাহ আলম সারোয়ার, পানি সেচ ও বিদ্যুৎ বিষয়ক সৈয়দ মাসুদুল আলম শামীম, মো. কামাল উদ্দিন প্রমুখ। এছাড়া সকল উপজেলা ও পৌর কৃষক লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এবং বক্তব্য রাখেন।