বিয়ের জন্য অভিনেত্রীকে হোটেলে জিম্মি!

অভিনেত্রীরা বিভিন্ন সময় অনাকাঙ্খিত ঘটনার সম্মুখীন হয়ে থাকেন। এমনই এক অনাকাঙ্খিত ঘটনার মুখোমুখি হলেন ভোজপুরী অভিনেত্রী রীতু সিং।

রীতু একটি হোটেলে অবস্থান করছে এমন খবর পেয়ে হোটেলে হানা দেয় পঙ্কজ ত্রিপাঠি নামের এক যুবক। সেখানে রীতু সিংকে বন্দুকের মুখে জিম্মি করে রাখেন তিনি। পরে অবশ্য পুলিশি তৎপরতায় ওই অভিনেত্রী মুক্তি পান।

জিনিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতকাল শনিবার (২৫ মে) সোনভদ্র জেলার রবার্টসগঞ্জের একটি হোটেলে ওঠেন রীতু সিং। শুটিংয়ের জন্যই তিনি রবার্টসগঞ্জে এসেছিলেন। আর সেখানেই ঘটে বিপত্তি। তার পেছনে পেছনে শহরে চলে আসেন পঙ্কজ ত্রিপাঠি। এরপর হোটেলের ঢুকে একেবারে সিনেমার কায়দায় অভিনেত্রীর মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে জোর করে সিঁদুর দেওয়ার হুমকি দেন তিনি। এতে হোটেলে শুরু হয়ে যায় শোরগোল।

শুটিংয়ের জন্য ওই হোটেলেই উঠেছিলেন মুম্বাই থেকে আসা ক্রু-রা। পরে তারাই পুলিশকে খবর দেন। এর মধ্যেই অশোক নামে এলাকার এক তরুণ পঙ্কজকে বাধা দিতে গেলে তিনি সোজা গুলি চালিয়ে দেন অশোককে লক্ষ্য করে। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিকে তীব্র উত্তেজনার মধ্যেই হোটেলে চলে আসে পুলিশ সুপার। তিনি পঙ্কজকে বোঝানোর চেষ্টা করলে ফের তিনি গুলি চালান। এতে অল্পের জন্য বেঁচে যায় ওই পুলিশ। তার কান ঘেঁসে গুলি বেরিয়ে যায়। এর মধ্যেই ঝাঁপিয়ে পড়ে পঙ্কজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।