প্রাইভেটকারের আঘাতে সরকারি কর্মচারীর পা ভেঙ্গে দুই টুকরা

ডেস্ক রিপোর্ট :: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল রোডের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে বেপরোয়া প্রাইভেটকারের আঘাতে সুয়েব আহমদ নামে এক সরকারি কর্মচারীর পা ভেঙ্গে দুুই টুকরা হয়ে গেছে।

আহত সুয়েব আহমদ মৌলভীবাজার সিভিল সার্জন অফিসে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে কর্মরত। তিনি রাজনগর উপজেলার গালিমপুর গ্রামের মৃত আখদ্দছ আলীর ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানা, গত ২৭ মে (সোমবার) রাতে তারাবীর নামাজের পর মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল রোডে একটি বেপরোয়া গতির প্রাইভেটকার সুয়েব আহমদের চাপা দেয়। এতে তিনি ডান পায়ে মারাত্মক আঘাত পান। এসময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে গুরুতর আহত অবস্থায় মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যায়।
এদিকে ঘটনার পরপরই উপস্থিত লোকজন ঘাতক প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো: গ-১১৮২৮৫) ও ড্রাইভার তাজুল ইসলামকে আটক করেন। তবে আহত সুয়েব আহমদকে হাসপাতলে নিয়ে যেতে লোকজন ব্যস্ত থাকায় প্রাইভেটকার নিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায় চালক।
তাকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে আসেন মৌলভীবাজার সিভিল সার্জন ডা. শাহজাহান কবির চৌধুরী ও অর্থোেেপডিক্স বিভাগের ডা. অলক রঞ্জন। এক্সরে রিপোর্টে পায়ের হাড় মারাত্মক জখম দেখে চিকিৎসকরা তাকে সিলেট রেফার করেন। বর্তমানে তিনি সিলেট নগরীর মাউন্ট অ্যাডোরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।