বিষ খেলেও মনে হয় মানুষের এত কষ্ট হয় না: সোহেল তাজ

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ তাঁর নিখোঁজ ভাগ্নেকে এগারো দিন পরে ফিরে পেয়ে বলছেন, এমনটা যেন আর কোনো পরিবারের সঙ্গে না হয়। সংবাদমাধ্যম বিবিসি বাংলার খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ভোরে সৈয়দ ইফতেখার আলম সৌরভকে ময়মনসিংহ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর তাঁকে পুলিশি পাহারায় ঢাকায় নিয়ে আসা হয় এবং পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

ঢাকায় সাংবাদিকদের সামনে তাজ বলেন, আমাদের নিজেদের সঙ্গে এমনটা হয়েছে। কেউ নিখোঁজ হলে তাঁর পরিবারের ওপর দিয়ে কী অবস্থা যায়, আমরা জানি। এই মানসিক যন্ত্রণা কোনো মানুষের জন্য কাম্য হতে পারে না।

এতদিন ধরে একটা অনিশ্চয়তার ওপর ভর করে অপেক্ষা করতে হয়েছে সৌরভের পুরো পরিবারকে। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার আগে এক ফেসবুক লাইভেও তিনি এ কথা জানান।

সেখানে তিনি বলেন, ‘এই কয়দিন তো আমাদের অনুভূতি বলতে কিছুই ছিল না। খাওয়া-দাওয়া নেই। কোনো ঘুম নেই। কখন কল আসবে, ওর গলা শোনা যাবে কি-না। এই ভেবে দিনরাত অপেক্ষা করে গেছি। এটা একটা বিষাক্ত অনুভূতি। বিষ খেলেও মনে হয় মানুষের এত কষ্ট হয় না।’

এ সময় সৌরভের মা বলেন, অন্য কোনো বাবা-মাকে যেন এই ‘বিভীষিকাময়’ অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যেতে না হয়।

পুলিশের দাবি, অপহরণকারীরা সৌরভকে তারাকান্দা উপজেলার বটতলা বাজার এলাকার একটি রাইস মিলের কাছে গাড়ি থেকে ফেলে রেখে যায়। এ সময় ফ্যাক্টরির কয়েকজন কর্মচারী সৌরভকে দেখতে পেয়ে তাঁর পরিবারের কাছে ফোন করে বিষয়টি জানান। এরপর পরিবারের পক্ষ থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বিষয়টি জানানো হলে তারা তাৎক্ষণিকভাবে সৌরভকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে।

উদ্ধারের সময় সৌরভ শারীরিকভাবে অক্ষত থাকলেও মানসিকভাবে বেশ বিপর্যস্ত ছিলেন বলে জানিয়েছেন জেলার পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন।