মিলার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

মিলা ও সানজারিসাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির বিরুদ্ধে দায়ের করা নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় উল্টো বিপদে পড়েছেন সংগীতশিল্পী মিলা। সাক্ষী হিসেবে উপস্থিত না থাকায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে।

২০১৭ সালে মিলার দায়ের করা সেই নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় চার্জ গঠন হয়েছে ২০১৮ সালে। কিন্তু দেড় বছর ধরে মিলা সাক্ষী দিতে না আসায় একাধিকবার সমন জারি করা হয়। তবুও আদালতে হাজির না হওয়ায় এই সংগীতশিল্পীর বিরুদ্ধেই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন মহানগর আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ৯-এর বিচারক মো শরিফ উদ্দিন।

গতকাল এই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। এদিকে বিষয়টি নিয়ে মিলার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বিষয়টি আমিও শুনেছি। এটি নিয়ে আমি আইনজীবীর সঙ্গে আলোচনা করছি। দ্রুতই আমি আদালতে যাবো।’

উল্লেখ্য, দীর্ঘ দশ বছরের প্রেম থেকে ২০১৭ সালের মে মাসে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন মিলা ও পারভেজ সানজারি। বিয়ের পর মিলা গানে হয়ে পড়েন অনিয়মিত। জড়িয়ে যান সংসার জীবনের দ্বন্দ্ব-বিবাদে। একপর্যায়ে সংসার জীবনের ইতি টানেন পপ গানের এই শিল্পী। নারী নির্যাতন-যৌতুকের অভিযোগে এনে স্বামী সানজারির বিরুদ্ধে মামলাও করেন তিনি। অন্যদিকে সানজারিও মিলার বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার মামলা করেছেন।