জগন্নাথপুরে অবশেষে ১৮ দিন পর ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী উদ্ধার

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি।।  সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের অনঙ্গ মোহন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এন্ড জুনিয়র হাইস্কুলের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী অবশেষে উদ্ধার হয়েছে।
জগন্নাথপুর থানার পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সহকারী পুলিশ সুপার জগন্নাথপুর সার্কেল মোঃ মাহমুদুল হাসান চৌধুরী ও জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী এবং পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নব গোপাল দাশের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা এবং তথ্য প্রযুক্তিগত সহায়তার মাধ্যমে মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই মোঃ কবির উদ্দিন ইন্স: তদন্ত নব গোপাল দাশ এর নেতৃত্বে জগন্নাথপুর থানার মামলা নং-১৯ এর পলাতক ১নং আসামী জমির আলী (২৫)কে গ্রেফতার সহ ক্ষতিগ্রস্ত মেয়েকে উদ্ধারের জন্য আসামী সহ তাদের আতœীয় স্বজনদের বাড়ী ঘর সহ চট্রগ্রামের বিভিন্ন স্থানে পুলিশী ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় অত্র মামলার ক্ষতিগ্রস্ত মেয়েকে বুধবার উদ্ধার করা হয়। ক্ষতিগ্রস্ত মেয়ে পাইলগাঁও অনঙ্গ মোহন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এন্ড জুনিয়র হাইস্কুলের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী।
এব্যাপারে জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত মেয়ে একজন অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ে এবং স্কুল ছাত্রী বিধায় মেয়ের প্রকৃত বয়স নির্ধারন সহ আসামী কর্তৃক ধর্ষিত হয়েছে কি-না? সে বিষয়ে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বুধবার সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হইয়াছে। ডাক্তারী পরীক্ষা শেষে ২২ ধারা মতে জবানবন্দি রেকর্ড এর জন্য পরবর্তীতে ক্ষতিগ্রস্ত মেয়েকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হইবে। পলাতক আসামী জমির আলী সহ অপরাপর আসামীদের গ্রেফতারের জন্য জোর চেষ্টা অব্যাহত আছে।