সিলেট ছাত্রলীগের নতুন কমিটি, নেতৃত্বের দৌড়ে আলোচনায় যারা

সুরমা ভিউ।।  দীর্ঘদিন থেকে নেতৃত্ব সংকটের অবসান কাটিয়ে কমিটির মুখ দেখতে যাচ্ছে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগ। চলতি মাসেই ঘোষণা হতে পারে নতুন কমিটি। তবে এ মাসে কমিটি না হলে শোকের মাস আগস্টের পরে সেপ্টেম্বরে হবে। ইতোমধ্যে বেশ কয়েক ধাপে সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা নিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় উপ-অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মহসিন খন্দকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এদিকে প্রত্যেকবার সিলেটে সিন্ডিকেট ভিত্তিতে ছাত্রলীগের কমিটি হলেও এবার তাঁর ব্যতিক্রম হতে পারে। ত্যাগী ও দক্ষতার ভিত্তিতে কমিটি গঠন করা হবে বলে কেন্দ্রীয় সূত্রে জানা গেছে। এজন্য দফায় দফায় সম্ভাব্য প্রার্থীদের বায়োডাটা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। ফলে কমিটি গঠনে বিলম্ব হচ্ছে। সব ধরণের বিতর্ক এড়াতে এবার একটু বেশি সময় নিয়ে কমিটি গঠনের কাজ করছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। তবে দক্ষতার ভিত্তিতে কমিটি প্রদানে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ অনঢ় থাকলেও শেষ পর্যন্ত বিভিন্ন গ্র“পের মুখে কুলুফ আটতে সব গ্র“পের সমন্বয়ে কমিটি হবে এমনটা জানিয়েছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। যার জন্য জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে সিলেট আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতাদের অনুসারীদের নাম রয়েছে বলে সুর ওঠেছে। এমনকি কেন্দ্রীয় গুটি কয়েক নেতার সিলেটে গোপন সফরে ওই বলয়ের সম্পৃক্ততা রয়েছে। ফলে প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতাদের গ্র“পকে প্রাধান্য দেওয়া হবে বলে মনে করছেন ত্যাগী ছাত্রলীগ কর্মীরা।
জানা গেছে, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের কমিটিতে শীর্ষ পদে সিলেট মহানগর আওয়ামীলী নেতা বিধান কুমার সাহার নিয়ন্ত্রণাধীন কাশ্মীর গ্র“পের কয়েকজন নেতার নাম রয়েছে। এই গ্র“প থেকে শীর্ষ পদে আলোচনায় রয়েছেন মদন মহন কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সাদিক রহমান। তাঁর সাথে রয়েছেন একই কলেজের নাইম আহমদ,
আলোচনায় আছেন মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির মেধাবী আরোও দুই শিক্ষার্থী মোহন তালুকদার মুন্না,শেখ লিপন। আলোচনায় আছেন সিলেট সরকারী কলেজ থেকে সদ্য (বিবিএস) পাস করা আরেক পরিশ্রমী এবং মেধাবী শিক্ষার্থী এম জাকারিয়া আহমেদ। এই পাচঁ জনের উপর এ পর্যন্ত একটিও রাজনৈতিক মামলা না থাকায় ক্লিন ইমেজের ছাত্র নেতা হিসেবে তাদের পরিচিতি রয়েছে। এরই জন্য কমিটিতে শীর্ষ পদে আসছেন বলে সুর ওঠেছে। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেলের নিয়ন্ত্রিত শহীদ নুর হোসেন ব্লক থেকে ছাত্রলীগে নেতা কিশোয়ার জাহান সৌরভ ব্যাপক আলোচনায় রয়েছেন। মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক আসাদ উদ্দিন অনুসারীদের মধ্য কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য শাওন আহমদ এবং সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ময়জুল ইসলাম রাহাতের নামও রয়েছে। এদিকে মহানগর আওয়ামী লীগ এর সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান অনুসারী থেকে বড় চমক আসছে বলে জানা গেছে। এবারে সাবেক মেয়র কামরানের বলয় থেকে আলী হোসেন আলমের নাম আলোচনায় রয়েছে শীর্ষ পদগুলোর তালিকায়। অপরদিকে জেলা ছাত্রলীগের শীর্ষ পদে শক্ত অবস্থানে রয়েছেন মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ স¤পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর অনুসারী সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মুহিবুর রহমান। এছাড়াও আসন্ন কমিটিতে একই গ্র“পের তাহমিদ আহমেদ নাদেল এবং এম মোজাব্বির আলীর নাম ব্যাপক আলোচনায় রয়েছেন। সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ এর যুগ্ম সাধারণ স¤পাদক নাসির উদ্দিন খাঁন নিয়ন্ত্রিত তেলিহাওর গ্র“প থেকে ভালো অবস্থানে রয়েছে একমাত্র প্রার্থী মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির ক¤িপউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র জাওয়াদ ইবনে জাাহিদ খান। তিনি বিগত সিলেট জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারন স¤পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেন। এদিকে মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক স¤পাদক ও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদের বলয় থেকে শক্ত অবস্থানে রয়েছে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি অনিরুদ্ধ মজুমদার পলাশ। এছাড়াও জেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা এডভোকেট রনজিত সরকারের বলয় থেকে রয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য নাজমুল ইসলাম। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব খান জানান, আমরা ইতোমধ্য সিলেট ঘুরে গেছি বিভিন্ন গ্র“প উপগ্র“প দেখেছি। খুব শীঘ্রই নতুন কমিটি ঘোষণা করা হবে। এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক খুব গুরুত্ব সহকারে বিষয়টা দেখছেন। তিনি আরো জানান, সামনে আগস্ট মাস তাই আমরা সাংগঠনিক নিয়ম অনুযায়ী আমরা চলতি মাসেই কমিটি করব। যার জন্য আমরা দলীয় অনেক কার্যক্রম এবং সফর শেষ করেছি।

প্রয়োজনে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ :
সভাপতি: রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন- ০১৭২৩-৩১৪৪৯২
সম্পাদক: গোলাম রব্বানী- ০১৬১৭-৪২৮২১৪
যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক: মাহবুব খান (সুনামগঞ্জ)- ০১৫৩৪-৫৮৪৪৬৯