আইন-শৃংঙ্খলা ও চোরাচালান প্রতিরোধ বৈঠকে গরু মহিষ প্রবেশ বন্দে ব্যবস্থা গ্রহন

প্রকাশিত: ২:১৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২০

আইন-শৃংঙ্খলা ও চোরাচালান প্রতিরোধ বৈঠকে গরু মহিষ প্রবেশ বন্দে ব্যবস্থা গ্রহন

জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধি::  জৈন্তাপুরে আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় অবৈধ ভাবে ভারতীয় গরু-মহিষ প্রবেশ বন্দের ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ। ১৩ ই জানুয়ারী সোমবার সকাল ১০টায় সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলায় মাসিক আইন-শৃংখলা ও চোরাচালান, মাদক বিরোধী সভা অনুষ্টিত হয়।

জৈন্তাপুর উপজেলায় নির্বাহী অফিসার নাহিদা পারভীন’র সভাপতিত্বে উক্ত সভায় প্রধান অথিতি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামাল আহমদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পলিনা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান বশির আহমদ, জৈন্তাপুর মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ তদন্ত ওমর ফারুক মোড়ল, ইউপি চেয়ারম্যান এখলাছুর রহমান, বাহারুল আলম বাহার, চেয়ারম্যান শাহ আলম চৌধুরী তোফায়েল, মোঃ ইয়াহিয়া, আবুল কাহির, আমিনুর রশিদ, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, কৃষি কর্মকর্তা সব্রত দেবনাথ, সমাজ সেবা কর্মকর্তা এ কে আজাদ ভূইয়া, জৈন্তাপুর প্রেসক্লাব সভাপতি শাহেদ আহমদ, জৈন্তাপুর অনলাইন প্রেসক্লাব সভাপতি এম.এম. রুহেল, উপজেলা তথ্য কর্মকর্তা তাসলিমা ফেরদৌস মনি, ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা ফারুক হোসাইন সহ বিভিন্ন দপ্তর ও আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্য বৃন্দ।

সভায় জৈন্তাপুর উপজেলার সিমান্ত দিয়ে প্রতিদিন অবৈধ গরু, মহিষ, মাদক প্রবেশ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলা হয়। সিমান্ত বাহিনীর সহযোগিতায় উপজেলার শ্রীপুর, আলুবাগান, আসামপাড়া, মিনাটিলা, কেন্দ্রি কাঠালবাড়ী, ডিবিরহাওর, ঘিলাতৈল ফুলবাড়ী, টিপরাখলা, কমলাবাড়ী, গোয়াবাড়ী, বাইরাখেল, কলিঞ্জিবাড়ী, লালাখাল, বাঘছড়া, তুমইর, বালিদাঁড়া দিয়ে গরু মহিষ প্রবেশের বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা পারভীন বলেন জৈন্তাপুর সিমান্ত দিয়ে সকল প্রকার অবৈধ গরু, মহিষ, প্রবেশ বন্দ করার সিধান্ত নেওয়া জন্য সংশ্লিষ্ট ক্যাম্প কামান্ডাদের নির্দেশ প্রদান করা হল।

আইন-শৃঙ্খলার সভায় উপস্থিত বক্তারা আরো বলেন, অবৈধ গরু, মহিষ প্রবেশ নিয়ে সম্প্রতি বিভিন্ন চোরাকারবারী গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়ছে। অপরদিকে চোরাকারবারীরা অবৈধ পথে গরু প্রবেশ করতে গিয়ে সীমান্তের বিভিন্ন জনসাধারনের ফসল বিনষ্ট করছে। সীমান্তের বাসিন্ধরা বার বার আমাদেরকে বিষয়টি জানাচ্ছে কিন্তু কোন অবস্থায় তা নিয়ন্ত্রন করা যাচ্ছে না। আর এই সুযোগে চোরাকারবারীরা ভারত হতে মদ ও মাদক জাত পন্য বাংলাদেশ বানের পানির মত নিয়ে আসছে। এজন্য সাধারন মানুষ রাস্তায় চলাফেরা করার ক্ষেত্রে কষ্টকর হয়ে পড়ছে। সচেতন মহল যে কোন সময় অবৈধ গরু, মহিষ ভারতীয় পণ্য প্রবেশ বন্দে জৈন্তাপুর উপজেলা সদরে মানববন্ধন সহ কঠোর কর্মসূচি গ্রহনের মত সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। সভায় বাল্য বিয়ে, নারী নির্যাতন, যৌতুক, জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কে জনসচেতনত সৃষ্টির বিষয় আলোচনা হয়।

সুরমাভিউ সর্বশেষ সংবাদ